February 26, 2024
আঞ্চলিকলেটেস্টশিক্ষাশীর্ষ সংবাদ

প্রাতিষ্ঠানিক মেইল নিয়ে নানা জটিলতায় খুবি শিক্ষার্থীরা

রেজওয়ান আহম্মেদ, খুবি
বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ডিসিপ্লিনের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী মো: জাহিদুল ইসলাম। প্রাতিষ্ঠানিক মেইলে পাওয়ার পরে নিজের মতো পাসওয়ার্ড সেট করে ব্যবহারও করেছেন কিছুদিন। কিন্ত হঠাৎ আইডিতে এক্সেস পাচ্ছিলেন না। লগইনের চেষ্টা করলে লেখা আসছে ‘দিজ একাউন্ট ডাজ নট এক্সিস্ট’। পরে আইসিটি সেলে যোগাযোগ করলে তাদের নির্দেশনা মোতাবেক ডিসিপ্লিন প্রধানের মাধ্যমে মেইল ফরওয়ার্ড করলে একদিনের মাথায় আজ (শনিবার) আইডি ফিরে পান। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রদত্ত প্রাতিষ্ঠানিক ই-মেইল নিয়ে এমন নানামুখী সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা।
জানা যায়, ২০১৯ সালে আইসিটি সেল থেকে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘১৯ ব্যাচকে প্রথম এই প্রাতিষ্ঠানিক মেইল প্রদান করা হয়। ঐ বিজ্ঞপ্তিতে সবার জন্য একই পাসওয়ার্ড (ku2019@!) সেট করে দেওয়া হয় এবং নিজেদের মতো করে পরিবর্তন করে নিতে বলা হয়।
শিক্ষার্থীরা জানায়, যেহেতু ইমেইল এড্রেস প্রত্যেকের রোল অনুযায়ী এবং সবার জন্য একই পাসওয়ার্ড সেট করে দেওয়া। তাই যে কেউ ইচ্ছে করলেই অন্যের মেইলের ডিফল্ট পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করে ফেলতে পারবেন।
ইংরেজি ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থী সুস্মিতা সেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইমেইল দেওয়ার কিছুদিন পরে আমি ডিফল্ট পাসওয়ার্ড দিয়ে ঢুকতে চেষ্টা করি। কিন্তু পাসওয়ার্ড ভুল দেখায় এবং আমার আগেই হয়তো কেউ পরিবর্তন করে ফেলছিলো। পরে আমি কিছুটা ভয়ও পাই যে, এই মেইল এড্রেস ব্যবহার করে কেউ দুর্ঘটনা ঘটালে হয়তো আমারই দায় নিতে হবে। তাই গতবছর মে মাসের দিকে করোনার মধ্যেও আমি আইসিটি সেলে গিয়ে যাবতীয় কাগজপত্র জমা দিয়ে আসি। তারপরও বিলম্ব হচ্ছিলো সমাধান হতে। পরে আবার ফোন করলে ঠিক করে দিয়েছে। এর জন্য আমাকে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয়েছিলো।
এছাড়াও পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার পরে আবার ভুলে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষার্থী। করোনার এ মুহুর্তে যেহেতু সশরীরে এসে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দেওয়া সম্ভব না, তাই সমস্যা সমাধানের চেষ্টাও করছেন না শিক্ষার্থীরা। ফলে শিক্ষার্থীদের অনেকেই অফিস ৩৬৫এ (Office 365) এক্সেস নিতে পারছেন না। তাছাড়া নতুন ডিভাইসে লগইন করতে গিয়েও নানাবিধ জটিলতায় পড়েছেন অনেকে।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেলের পরিচালক প্রফেসর ড. কামরুল হাসান তালুকদার বলেন, সবার জন্য স্বতন্ত্র পাসওয়ার্ড সেট করলে পারলে ভালো হতো কিন্তু আমার আইসিটি সেলে যে লোকবল আছে তাতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য আলাদা পাসওয়ার্ড সেট করা এবং সেটা জানানো খুবই কঠিন কাজ।
তিনি আরও বলেন, পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে বা যেকোনো ধরনের জটিলতায় পড়লে ডিসিপ্লিন প্রধানের মাধ্যমে তালিকা পাঠালে আমরা দ্রততম সময়ের মধ্যে সমাধান করে দেব। নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্যই আমরা সরাসরি শিক্ষার্থীদের মেইলের প্রেক্ষিতে রিসেট করে দিচ্ছি না।

দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন/ জে এফ জয়

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *