প্রলোভন দেখিয়ে তানজিলকে বলাৎকার, পরে শ্বাসরোধে হত্যা

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সিদ্ধিরগঞ্জে শিশু তানজিলকে বলাৎকার করে পরে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে গ্রেফতারকৃত বাড়ির কেয়ারটেকর নাজমুল ইসলাম রাজু। গতকাল রোববার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের জুডিশিয়াল আদালতে রাজুর ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। এর আগে শুক্রবার চুয়াডাঙ্গা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আর আগেরদিন বৃহস্পতিবার বিকেলে তানজিলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তানজিল সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন রসুলবাগ গ্রামস্থ আলমখানের বাড়ির ভাড়াটিয়া আনোয়ার হোসেনের ছেলে।
দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ প্রেসনোটে জানান, ১৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় ২০ টাকার প্রলোভন দেখিয়ে তানজিলকে বলাৎকারের উদ্দেশ্যে বাড়ির স্টোর রুমে নিয়ে যায় রাজু। সেখানে সে তাকে বলাৎকার করে আটকে রাখে। তানজিলের মা তাকে খোঁজাখুজি করে না পেলে ডাকাডাকি করতে থাকে। তখন তানজিল ডাকের সাড়া দিতে চাইলে আসামি রাজু প্রথমে তার মুখ চেপে ধরে। তারপরেও তানজিল সাড়া দিতে চাইলে আসামি বলাৎকারের ঘটনা ফাঁস হয়ে যাওয়ার ভয়ে শ্বাসরোধ করে তানজিলকে হত্যা করে। মরদেহ কাঁথা দিয়ে পেঁচিয়ে মেঝেতে রেখে বড় ড্রাম দিয়ে ঢেকে রাখেন। এরপর স্টোর রুম তালাবদ্ধ করে রাতে পালিয়ে যান।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.