পাকিস্তানের কাছে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক জয় সন্দেহজনক!

অনলাইন ডেস্ক

১৯৯৮ সালের ৩১ মে তখনকার বিশ্বকাপের টপ ফেভারিট পাকিস্তানকে ৫২ রানে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। এখনো বিশ্বকাপের সেরা মুহূর্ত গুলির মধ্যে এটি একটি। ১৯ বছর পর আকস্মিক ভাবে পাকিস্তানের সে হার কে সন্দেহজনক বলছেন পাকিস্তানের সাবেক বোর্ড সভাপতি। তখন ফাইনালে হারার পর পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতির পদ হারান খালিদ মেহমুদ। বিশ্বকাপের অন্যতম বড় ঘটনা বলে আলোচিত হয়েছিল সে জয় এবং পাকিস্তানের বিভিন্ন চ্যানেলে বিশেষ করে জিও নিউজ এর অনুষ্ঠান স্কোরে এবং সেই অনুষ্ঠানেই তখনকার বিশ্বকাপের স্কোয়াডের প্লেয়ার দের গায়ে সন্দেহজনক সিল লাগিয়ে দিয়েছিলেন মেহমুদ। মেহমুদ দাবি করেছে বিশ্বকাপের আগেই তৎকালীন দলের খেলোয়ারদের আচরণ কেমন যেন অস্বাভাবিক ছিল এবং এটি তাকে জানিয়েছেন তৎকালীন কোচ জাভেদ মিয়াঁদাদ। আবার বিশ্বকাপের ঠিক আগ মুহূর্তেই সাফল্য এনে দেওয়া কোচ জাভেদ মিয়াঁদাদ সরে দাঁড়ান। এই সাবেক বোর্ড সভাপতির দাবি সে বছর ১২ এপ্রিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে পাকিস্তানের হারে খেলোয়াড়দের সন্দেহজনক আচরণ দেখেই নাকি মিয়াঁদাদ পদত্যাগ করেছেন এবং এরপর থেকেই মেহমুদের সন্দেহ জেগে ছিল। এই বোর্ড সভাপতির দাবি ক্যাপ্টেন ওয়াসিম আকরাম এর অধীনে বাংলাদেশের কাছে পাকিস্তানের হার কেমন যেন সন্দেহজনক। তার ধারণা পাকিস্তানের এমন স্কোয়াড নিয়ে বাংলাদেশের কাছে হারাটা যথার্থ ছিল না, এ ঘটনায় একই সাথে তিনি চিন্তিত ও রাগান্বিত হন।অনেকগুলা সফল ক্রিকেটের নিয়েও বাংলাদেশের কাছে এই হারের তদন্ত হওয়া উচিত ছিল বলে তিনি মনে করেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *