নৈতিক অবক্ষয়ের কারণেই লালসার শিকার হয়ে জীবন দিচ্ছে নুসরাতরা

খুলনায় যুব আন্দোলনের সম্মেলনে চরমোনাই পীর

 

দ: প্রতিবেদক

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, নৈতিকতার চরম বিপর্যয় ঘটছে। নৈতিকতার অবক্ষয় থেকে মানুষকে উদ্ধার করতে না পারলে দেশ আরো ভয়াবহতার দিকে যাবে। আর একের পর এক নুসরাতরা লালসার শিকার হয়ে জীবন দিবে।

তিনি বলেন, আর কোন মা-বোনেরা যেন নুসরাতের পরিণতি বরণ করতে না হয় এজন্য নুসরাতের হত্যাকারীদেরকে কঠোর শাস্তির মুখোমুখি করতে হবে।

গতকাল বুধবার দুপুর ২টায় খুলনার বিএম ভবন কাজী আজাহারুল হক মিলনায়তনে আয়োজিত ইসলামী যুব আন্দোলন খুলনা মহানগরের নগর সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

চরমোনাই পীর আরও বলেন, সমাজের প্রাণশক্তি যুবকদেরকে মাদক, সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও চাঁদাবাজি থেকে মুক্ত হয়ে সত্য ও সুন্দরের পথে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করতে হবে। যুব সমাজই হল দেশ গড়ার প্রধান হাতিয়ার অথচ সঠিক পরিকল্পনার অভাবে আমাদের দেশের কিছু যুবক অপকর্মে লিপ্ত। এই যুব সমাজের আদর্শিক উন্নয়ন ঘটাতে পারলে আমাদের সমাজের পুরো চিত্র পাল্টে যেত।

নগর সভাপতি মুহা. ইসমাঈল হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমরান হোসেন মিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য আলহাজ্ব ডাঃ মোখতার হোসাইন, প্রধান বক্তা ছিলেন ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যাণ সম্পাদক হাফেজ মাওঃ জহিরুল ইসলাম।

আরও বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগর সভাপতি মাওঃ মুজ্জাম্মিল হক, সহ-সভাপতি শেখ মুহা. নাসির উদ্দিন, সেক্রেটারী মুফতী আমানুল্লাহ, সাবেক সেক্রেটারী মুফতী মাহবুবুর রহমান, মাওঃ দ্বীন ইসলাম, আলহাজ্ব আবুল কাশেম, এইচ এম জুনায়েদ মাহমুদ, আব্দুর রশিদ, মোঃ ফেরদাউস গাজী সুমন, মুহা. মেহেদী হাসান, মোঃ আমজাদ হোসেন, শিমুল ব্যাপারী, হাফেজ মোঃ হাসান, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, মোঃ আল আমিন, মোঃ বাকী বিল্লাহ, ছাত্র নেতা শেখ আমিরুল ইসলাম, মুহা. সাইফুল ইসলাম, এসকে নাজমুল হাসান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ

সম্মেলনে মুহা. ইসমাঈল হোসেনকে সভাপতি, আবুল কাশেমকে সহ-সভাপতি ও মোঃ ইমরান হোসেন মিয়াকে সাধারণ সম্পাদক করে খুলনা মহানগর যুব আন্দোলনের কমিটি ঘোষণা করা হয়।

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.