নুসরাতের মৃত্যু: অধ্যক্ষের আইনজীবীকে আ’লীগ থেকে বহিষ্কার

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির শরীরে আগুন দেওয়ার মামলার প্রধান আসামি অধ্যক্ষ এসএম সিরাজ-উদ-দৌলাকে আইনি সহায়তা দেওয়ায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা কাজী বুলবুল আহমেদ সোহাগকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। ফেনীর সদর উপজেলার কাজীরবাগ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বুলবুল ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান বৃহস্পতিবার দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন, ন্যক্কারজনক এ ঘটনায় আসামিদের পক্ষ নেওয়ায় তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত শনিবার ফেনীর সোনাগাজীর ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাতের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেওয়া হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে মৃত্যু হয় এই আলিম পরীক্ষার্থীর।

পরিবার বলছে, ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এসএম সিরাজ-উদ-দৌলার বিরুদ্ধে ‘শ্লীলতাহানির’ অভিযোগ এনে গত মার্চে সোনাগাজী থানায় একটি মামলা করেন নুসরাতের মা। ওই মামলা তুলে না নেওয়ায় অধ্যক্ষের অনুসারীরা নুসরাতের গায়ে আগুন দেয়।

ওই ঘটনার পর গত ২৭ মার্চ অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলা গ্রেপ্তার হলে তার আইনজীবী হিসেবে আদালতে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট কাজী বুলবুল আহমেদ সোহাগ। পরে তিনি আদালতের বাইরে সাংবাদিকদের সামনে সিরাজ-উদ-দৌলাকে নির্দোষ দাবি করেন।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.