নিজেদের রক্ষায় মুসলিম দেশগুলোকে এক হতে হবে : মাহাথির

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

গোটা দুনিয়ায় কোণঠাসা হয়ে পড়ছে মুসলিম দেশগুলো। বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন দেশে যুদ্ধ, সহিংসতা, নিপীড়নের বেশিরভাগ শিকার মুসলিম জনগোষ্ঠী। কিন্তু জাতিসংঘ বা বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলো এর সুরাহায় যথাযথ পদক্ষেপ নিতে পারছে না। এ অবস্থায় নিজেদের রক্ষায় এখনই মুসলিম দেশগুলোর একতাবদ্ধ হওয়া জরুরি বলে জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ।

গতকাল মঙ্গলবার ইরানের জেনারেল কাসেম সোলেমানি হত্যার ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন ৯৪ বছর বয়সী প্রবীণ এ বিশ্বনেতা।

মার্কিন হামলায় কাসেম সোলেমানির গুপ্তহত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়ে মুসলিম জনগোষ্ঠীর উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, মুসলিম দেশগুলোর একতাবদ্ধ হওয়ার এটাই যথার্থ সময়।  আমরা আর নিরাপদ নই। এখন (পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে) যদি কেউ কাউকে কটূক্তি করে, বা অপছন্দনীয় কিছু বলে, তাহলে অন্য দেশ থেকে ড্রোন পাঠিয়ে তাকে গুলি করে মারাটাও ঠিক আছে। ইরানি জেনারেল সোলেমানি হত্যাকে আন্তর্জাতিক আইন পরিপন্থি বলে অভিহিত করেন মাহাথির।

বরাবরই আমেরিকা ও পশ্চিমা দেশগুলোর অন্যায় আচরণের কড়া সমালোচক মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া সারা বিশ্বে মুসলিম স¤প্রদায়ের বিরুদ্ধে সহিংসতা, নিপীড়নেরও কট্টর সমালোচক তিনি। যা সঠিক বলে মনে হয়, সবসময়ই তা উচ্চারণ করবেন বলে নিজের অনড় অবস্থানের কথা জানিয়েছেন বিশ্বের সবচেয়ে বয়সী এ প্রধানমন্ত্রী।

ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই দেশটির সঙ্গে ভালো সম্পর্ক রক্ষায় তৎপর মাহাথির মোহাম্মদ। তার দেশে প্রায় ১০ হাজার ইরানি বসবাস করে। স¤প্রতি মালয়েশিয়ায় ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গে বাণিজ্য বিষয়ক বৈঠকও করেন মাহাথির।

কিছুদিন আগে এনআরসি ইস্যুতে মুসলিম নাগরিকদের সঙ্গে যথাযথ আচরণ করছে না বলে ভারত সরকারেরও সমালোচনা করেন তিনি। এছাড়া বিভিন্ন ইস্যুতে সৌদি আরবকেও আক্রমণ করেছেন এ নেতা। এ নিয়ে দিল্লি ও রিয়াদের সঙ্গে বর্তমানে মালয়েশিয়ার শীতল সম্পর্ক বিরাজ করছে।

 

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.