নগরীতে পাঁচতলা ভবন থেকে লাফ দিয়ে কলেজছাত্রীর মৃত্যু

 

দ: প্রতিবেদক

খুলনায় পাঁচতলা ভবনের ছাদ থেকে ঝাঁপ দিয়ে তানজিম আক্তার মনি (১৯) নামে এক কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। আশংকাজনক অবস্থায় গতকাল বুধবার সকালে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (খুমেক) নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে মঙ্গলবার পৌনে ১১টার দিকে নগরীর মৌলভীপাড়া এলাকার ৩০/৪, বিকে ইষ্ট মসজিদ লেনের পাঁচতলার ছাদ থেকে লাফ দেয়। তিনি খুলনার আযম খান সরকারি কমার্স কলেজের অনার্স (এ্যাকাউন্টিং) প্রথম বর্ষের ছাত্রী। এ ঘটনায় স্থানীয়রা তার মৃত্যুকে রহস্যজনক বলে মন্তব্য করেছেন। সদর থানা পুলিশ প্রাথমিকভাবে এ বিষয়ে অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করে ঘটনার তদন্ত করছেন।

নিহতের মা নাসরিন জাহান মেরী অপমৃত্যু মামলায় উলে­খ করেন, তার মেয়ে মনি বেশ কিছুদিন যাবৎ অন্য মনস্ক হয়ে চলাফেরা করে। মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে সে বাসা থেকে বের হয়। রাত ১০টায় ফিরে আসে। এ সময় ভাত খেতে বসে সে কয়েকবার বমি করে। পুনরায় ভাত খেতে বসে আবারো বমি করার কথা বলে রাত পৌনে ১১টার দিকে বাড়ির তৃতীয়তলা থেকে বের হয়ে দৌড়ে পাঁচতলার ছাদে উঠে। এ ঘটনা দেখতে পেয়ে তিনি (মা) তার পিছু নেন। কিন্তু ততক্ষণে মনি ছাদ থেকে ঝাপ দেয়। তাৎক্ষনিক তাকে উদ্ধার করে প্রথমে একটি বেসরকারি ক্লিনিকে, পরে সেখান থেকে খুমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেই সে মারা যায়।

মনির সৎ বাবা আনোয়ার হোসেন অগ্রণী ব্যাংক খুলনা জোনাল অফিসের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার। তিনি বলেন, তার প্রথম স্ত্রী’র মৃত্যুর পর তিনি বর্তমান স্ত্রী  নাসরিন জাহান মেরীকে বিবাহ করেন। মনি তার স্ত্রী’র আগের সন্তান। বর্তমানে তার আরো দু’টি সন্তান রয়েছে। তবে, তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে তিনি কিছুই জানাতে পারেননি।

খুলনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলতাফ হোসেন জানান, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে ছাদ থেকে ঝাপ দিয়ে মৃত্যুর বিষয়ে দাবি করা হচ্ছে। তবে, পোস্টমর্টেম রিপোর্ট এবং তদন্ত করে এ ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন করা হবে।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.