February 25, 2024
আঞ্চলিকলেটেস্ট

নগরীতে আ’লীগ অফিসে বিস্ফোরণের দায় স্বীকার আইএসের, তদন্তে একাধিক টিম

দ: প্রতিবেদক

খুলনা মহানগরীর খানজাহান আলী থানা এলাকার ‘শিরোমণি আ’লীগ

কার্যালয়’ বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে

আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসী

গোষ্ঠীগুলোর কার্যক্রম প্রচারকারী সংস্থা সাইট ইন্টেলিজেন্স সোমবার রাতে

এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, ‘দেশের তৃতীয় বৃহত্তম শহর খুলনায় আ’লীগের কার্যালয়ে বোমা

বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে আইএস, যা চলতি বছরে আইএসের ষষ্ঠ হামলা এবং ঢাকার

বাইরে প্রথম আক্রমন।’

 

সোমবার সন্ধ্যার পর খুলনা মহানগরীর ৩৪ নম্বর ওয়ার্ড আ’লীগ কার্যালয়ে

হামলার ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত হয়নি। তবে আসবাবপত্রের ক্ষতি হয়েছে।

বিস্ফোরণের পর পরই এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।

এদিকে বিস্ফোরণের ঘটনার তদন্তে একাধিক টিম মাঠে কাজ রয়েছে। অ্যান্টি

টেরারিজম ইউনিট ও কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটসহ বেশ কয়েকটি

গোয়েন্দা দল তদন্ত শুরু করেছে। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা থেকে খুলনায় এসে সকাল

থেকেই গোয়েন্দা ইউনিটের সদস্যরা বিস্ফোরিত আলামতসহ ঘটনার সার্বিক

বিষয় পর্যবেক্ষণ করেন।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ (কেএমপি) কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির

জানিয়েছেন, ‘আইএস দায় স্বীকার করেছে কিনা তা তিনি জানেন না। তবে

এ বিষয়টি তারা গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করছেন।’

কেএমপির মুখপাত্র মনিরুজ্জামান মিঠু বলেন, ‘ককটেল বিস্ফোরণের বিষয়টি

পুলিশ সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখছে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিষয়টি

সার্বিকভাবে মনিটরিং করছেন।’

এদিকে শিরোমণি ৩৪নং ওয়ার্ড আ’লীগের কার্যালয়ে বোমা বিষ্ফোরণের

ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় শিরোমণি আ’লীগ

কার্যালয়ের সামনে খানজাহান আলী থানা আ’লীগের উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা

অনুষ্ঠিত হয়। থানা আ’লীগের সভাপতি শেখ আবিদ হোসেনের সভাপতিত্বে

এবং সাধারণ সম্পাদক শেখ আনিছুর রহমানের পরিচালনায় প্রতিবাদ সভায়

প্রধান অতিথি ছিলেন মহানগর আ’লীগের সহ-সভাপতি বেগ লিয়াকত আলী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ফুলতলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্জ শেখ আকরাম

হোসেন, মহানগর আ’লীগের সদস্য ও থানা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার স.ম রেজওয়ান

আলী।

বক্তৃতা করেন থানা আ’লীগের সহ-সভাপতি বেগ আ. রাজ্জাক রাজ, সলেমান

মুন্সি, আ. রউফ খান খোকন, আটরা গিলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান

আলহাজ্জ শেখ মনিরুল ইসলাম, দুলাল চন্দ্র, মোড়ল আনিছুর রহমান, সেলিম রেজা,

জাকারিয়া রিপন, সায়েদুর রহমান, ৩৩নং ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি ইউসুফ

আলী খলিফা, সাধারণ সম্পাদক মোড়ল হাবিবুর রহমান, ৩৪নং ওয়ার্ড আ’লীগের

সভাপতি শেখ ইকবাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক খান লিয়াকত, ৩৫নং ওয়ার্ড

সভাপতি খান হাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হক, ৩৬নং ওয়ার্ড

সভাপতি আব্দুল হামিদ সরদার, সৈয়দ কিসমত আলী, আলহাজ্জ শেখ আনছার আলী,

শেখ আব্বাস হোসেন শেখ হাবিবুর রহমান, আলী আহম্মদ, মিজানুর রহমান

রুপম, তরিকুজ্জামান মনির, অলিয়ার রহমান রাজু, আবু হেনা বাবলু, শিরোমণি

তরুণ সংষের সভাপতি শেখ তরিকুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা ফারহান অভি, অয়নসহ

দলের অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। সমাবেশ শেষে একটি একটি বিক্ষোভ মিছিল

খুলনা যশোর মহাসড়কের শিরোমণির গুরুত্বপুর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।

অপরদিকে দলীয় কার্যালয়ে হামরার প্রতিবাদে সকালে খানজাহান আলী থানা

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *