নগরীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে সরকারি জমি দখলমুক্ত

 

দ: প্রতিবেদক

খুলনা মহানগরীর মহেশ্বরপাশা ও মীরেরডাঙ্গা এলাকায় ১৩.৩০ একর জমিতে অবৈধভাবে বসবাসকারীদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের নির্দেশনা ও সার্বিক তত্ত¡াবধানে এ অভিযান পরিচালনা করে ১৩.৩০ একর সরকারি জমি দখলমুক্ত করা হয়। উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মিজানুর রহমান।

তিনি জানান, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের এ জমিতে সরকারি সিদ্ধান্তক্রমে অবৈধ দখলমুক্ত করে একটি বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বসবাস করায় রাষ্ট্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে আসছিল। উচ্ছেদের পর তাদেরকে সরকারিভাবে পুনর্বাসনের কার্যক্রম ইতোমধ্যে চলমান রয়েছে।

এর আগে, ঐ ভূমি দখলদারদের সরকারী বিধি মোতাবেক নোটিশ প্রদান করা হয়। গত ফেব্র“য়ারীতে শ্রম ও কল্যান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান সরকারী ভাবে তাদের পরিবার প্রতি ৫০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন এবং একই সাথে তাদের জন্য এক শতক জমি বরাদ্দ দেন। ঐসময় তিনি তাদেরকে বরাদ্দকৃত স্থানে সাতদিনের মধ্যে যাওয়ার নির্দেশ দেন। সেখানে ২৫৪ টি পরিবার বসবাস করে আসছিল। তবে মন্ত্রীর নির্দেশনায় ৫৪ টি পরিবার বরাদ্দকৃত স্থানে চলে যায় এবং ৩৫টি পরিবার যাওয়ার অপেক্ষায় ছিল।

কিন্তু ভূমিতে অবৈধ ভাবে বসবাসরত বেশ কিছু ব্যক্তি বাকি ১৬৫টি পরিবারকে বরাদ্দকৃত জমিতে আসতে বাধা সৃৃষ্টি করে। এই প্রেক্ষাপটে, গত ২৮ মার্চ জেলা প্রশাসনের এক সভায় চূড়ান্ত ভাবে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

অভিযানের সময়ে উপস্থিত ছিলেন মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের জিএমএসআর আকতার হোসেন, এজিএম মোঃ আবদুল­াহ, দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মোস্তাক আহম্মেদ, খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শফিকুল ইসলাম।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.