দুর্ঘটনায় চার জেলায় ৫ জনের প্রাণহানি

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

নওগাঁ, হবিগঞ্জ, গাইবান্ধা ও দিনাজপুরে সড়কে দুর্ঘটনায় পাঁচজন নিহত হয়েছেন। সোমবার ও রোববার এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটে। নওগাঁয় দুজন এবং অন্য জেলাগুলোয় একজন করে নিহত হন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নওগাঁ : মান্দা উপজেলায় নিহত হয়েছেন দুই মোটরসাইকেল আরোহী শিক্ষক কামাল হোসেন (৪০) এবং ছাত্র সুমন হোসেন (১১)।

মান্দা থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন জানান, মোটরসাইকেল যোগে ছাত্র সুমনকে সঙ্গে নিয়ে শিক্ষক কামাল হোসেন স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়কের নীলকুঠি এলাকায় রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা হানিফ পরিবহনের একটি বাস মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি মোজাফ্ফর হোসেন আরও বলেন, লাশ উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। নিহত শিক্ষক কামাল হোসেন উপজেলার খুদিয়া ডাঙ্গা গ্রামের মৃত ইয়াদ আলীর ছেলে এবং সুমন সৈয়দপুর গ্রামের কাইয়ুম উদ্দিনের ছেলে। কামাল হোসেন উপজেলার সৈয়দপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও সুমন ওই বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্র।

গাইবান্ধা : সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী আলকাছ মিয়া (৪৫) নিহত ও অপর আরোহী আব্দুর রাজ্জাক ওরফে রাজু মিয়া (২২) গুরুতর আহত হয়েছেন। সুন্দরগঞ্জ-গাইবান্ধা আঞ্চলিক মহাসড়কের উপজেলার রামজীবন ইউনিয়নের পশ্চিম সুবর্ণদহ গ্রামের শিমুলতলায় সোমবার দুপুরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আলকাছ মিয়া উপজেলার শান্তিরাম ইউনিয়নের মধ্য পরান গ্রামের ওমর আলীর ছেলে। আহত আব্দুর রাজ্জাক ওরফে রাজু মিয়া ওই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে। তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি এসএম আব্দুস সোবহান জানান, সোমবার দুপুরে আলকাছ মিয়া ও রাজু মিয়া মোটরসাইকেল যোগে ওই এলাকায় পূর্ব পাশের গ্রামের সড়ক থেকে সুন্দরগঞ্জ-গাইবান্ধা আঞ্চলিক মহাসড়কে ওঠার সময় গাইবান্ধা থেকে ছেড়ে আসা রংপুরগামী একটি ট্রাক তাদেরকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেল চালক আলকাছ মিয়া মারা যান বলে ওসি জানান। তিনি জানান, ট্রাক চালক হাশেম আলীকে পুলিশ আটক করেছে ও ট্রাকটি থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

দিনাজপুর : সদর উপজেলায় ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী একজন নিহত ও দুইজন আহত হয়েছেন। সোমবার বিকাল ৫টায় এই দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন দিনাজপুর শহরের মুন্সিপাড়ার বাচ্চুর ছেলে হিমু (২৩)। আহতরা হলো শহরের বালুবাড়ির বাবুর ছেলে ইমন (১৯) এবং রশিদের ছেলে শিলন (২৫)। আহতদের দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কোতোয়ালি থানার ওসি রেদওয়ানুর রহিম বলেন, হতাহত তিনজনই একটি মোটরসাইকেলে শহরের আসার সময় পাঁচবাড়ী এলাকায় বিপরীতমুখী একটি ট্রাক তাদের মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়।

ওসি জানান, স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক হিমুকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর দুই আহত ইমন ও শিলন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় ট্রাকসহ এর চালক ও হেলপারকে আটক করেছে পুলিশ।

হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জ-মিরপুর সড়কে মাইক্রোবাসের চাপায় রহমত আলী (৬০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তিনি সদর উপজেলার কাজিহাটা গ্রামের মৃত আইবুল­ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, রহমত আলী পেশায় কৃষিজিবী। রোববার বিকালে জমিতে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে মিরপুর সড়কের ঠাকুরবাড়ি লঘুদয়ালেএলাকায় মিরপুরগামী দ্রুতগতি সম্পন্ন একটি মাইক্রোবাস তাকে চাপা দেয়।

সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউর রহমান বলেন, মাইক্রোবাসের ধাক্কায় তিনি পার্শবর্তী নিচু জমিতে ছিটকে পড়ে গুরতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে পাঠানোর পরামর্শ দেন। ঢাকায় নেওয়ার পথে মাধবপুরে এম্বুলেন্সে তার মৃত্যু হয়। উত্তেজিত জনতা মাইক্রোবাসটিকে আটক করেছে। সদর থানা পুলিশ লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *