দুদকে ‘ঘুষ দিতে গিয়ে’ আনসার কমান্ডেন্ট ধরা

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
দুর্নীতি দমন কমিশনের চট্টগ্রামের কার্যালয়ে গিয়ে গ্রেপ্তার হয়েছেন নীলফামারীর জেলা আনসার কমান্ডেন্ট আশিকুর রহমান। দুদক কর্মকর্তারা বলছেন, দুর্নীতির এক অভিযোগ থেকে বাঁচতে তিনি এক লাখ টাকা ঘুষ সেধেছিলেন।
বিসিএস ক্যাডারের কর্মকর্তা আশিকুর আগে বান্দরবানে ১৭ নম্বর আনসার ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক ছিলেন। তখন একটি দরপত্রের অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় তার অনুসন্ধান করছিলেন দুদকের উপ সহকারী পরিচালক জাফর সাদেক শিবলী। বৃহস্পতিবার সকালে সমন্বিত জেলা কার্যালয়, চট্টগ্রাম-২ এর জাফর সাদেকের দপ্তর থেকেই আশিকুরকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে আজ দুদক অফিসে নীলফামারী জেলা আনসার কমান্ড্যান্ট উপস্থিত হয়ে নগদ এক লাখ টাকা ঘুষের বিনিময়ে তার অনুকূলে অনুসন্ধান নিষ্পত্তি করার প্রস্তাব দেন। তখন অনুসন্ধান কর্মকর্তা শিবলী ঘটনাটি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। তাৎক্ষণিকভাবে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপস্থিতি হয়ে কমিশন কর্মকর্তাদের সহায়তায় এক লাখ টাকা ঘুষসহ তাকে গ্রেপ্তার করে।
আশিকুরের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানায় মামলা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দুদকের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, দুর্নীতির সাথে কেউ জড়িত হলে তিনি আর সরকারি কর্মচারী থাকেন না। সরকারি কর্মকর্তার মর্যাদা রাখতে হলে অবশ্যই দুর্নীতিমুক্ত থাকতে হবে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.