তেরখাদায় বাসের চাকায় পিষ্ঠ হয়ে এনজিওকর্মীর মৃত্যু, চালক আটক

তেরখাদা প্রতিনিধি
তেরখাদার সাচিয়াদহ কালিবাড়ি স্কুল সংলগ্নে সড়ক দুর্ঘটনায় আবুল কাশেম খান (৫৭) নামে এক ব্র্যাক কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পরে তিনি বাসের চাকায় পিষ্ঠ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। নিহত আবুল কাশেম গোপালগঞ্জের পাইকের ডাঙ্গা গ্রামের মৃত আলতাফ খানের পুত্র।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সকাল সাড়ে ৯টার সময় খুলনা থেকে সাচিয়াদহের উদ্দেশ্যে দিহান, ঢাকা-চ ৩০৯৫ বাসটি যাচ্ছিল। মোটরসাইকেল যোগে একই দিকে যাচ্ছিলেন তেরখাদায় কর্মরত এক ব্র্যাক কর্মী আবুল কাশেম। সাচিয়াদহ কালিবাড়ি স্কুল সংলগ্নে মোড় অতিক্রম করার সময় দুর্ঘটনায় তিনি মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে বাসের চাকায় পিষ্ঠ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
অপরদিকে ঘাতক বাসটিসহ ড্রাইভার মিজানুর রহমানকে আটক করেছে তেরখাদা থানা পুলিশ। এ নিয়ে বাস মালিক সমিতি ও ভুক্তভোগী পক্ষের মধ্যে টাকা-পয়সা দিয়ে মিমাংসার চেষ্টা চললেও মিমাংসা না হওয়ায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তেরখাদা থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়।
তেরখাদা থানার ওসি (তদন্ত) মোশাররফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘাতক চালক ও বাসটি আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
এলাকাবাসীর দাবী, সেনের বাজার-সাচিয়াদহ রুটে যে সকল বাসসহ অন্যান্য যাত্রীবাহী যানবাহন চলে তার বেশির ভাগই আনফিট, যান্ত্রিক ত্রুটিযুক্ত, অদক্ষ চালক এবং সুপারভাইজার বা হেলপারগণ বেপরোয়াভাবে ট্রাফিক আইন অমান্য করে চলাচল করায় প্রায়ই বিভিন্ন দুর্ঘটনা ঘটছে। হেলপারগণে প্রতিনিয়ত গাড়ি চালালেও এ বিষয়ে কোন মাথা ব্যাথা নেই বাস মালিক সমিতি কর্তৃপক্ষের। স্থানীয় এলাকাবাসী এ বিষয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন/ এম জে এফ

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *