April 25, 2024
আঞ্চলিক

তিনি শুধু একজন ব্যক্তি নয় , দুঃসময়ের কাণ্ডারী ছিলেন

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে মেয়র

 

 

মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, জিল্লুর রহমান শুধু একজন ব্যক্তি নয় তিনি দুঃসময়ের কাণ্ডারী ছিলেন। তিনি ৭০ সালের নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ৭১ এ তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করে দেশ স্বাধীনে বিশেষ ভূমিকা রাখেন। ৭২ এ তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে বঙ্গবন্ধু’র সাথে যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশকে পুর্ণগঠনের কাজে হাত দেন। ৭৫-এ দ্বিতীয় বার নির্বাচিত হয়ে বাংলাদেশকে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী করার কাজে হাত দেন। ইতিমধ্যে ’৭১ এর পরাজিত শত্রæরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করে। এই দু:সময়ে তিনি দলের কাÐারি হয়ে আওয়ামী লীগকে প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দেন। পরবর্তীতে তিনি পুনরায় দলের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

তিনি আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ১/১১ এর গ্রেফতার হলে এই দু:সময়েও তিনি দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হয়ে আওয়ামী লীগের হাল ধরেন। তাঁর বুদ্ধিমত্তা আর রাজনৈতিক দুরদর্শিতার কারনে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসে। তিনি আরো বলেন, জিল্লুর রহমান সংসদ সদস্য থেকে মন্ত্রী অত:পর রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন। জিল্লুর রহমান রাষ্ট্রপতি পদে আসীন থেকেই মৃত্যুবরণ করেন। দেশ ও জাতির দু:সময়ে তিনি রাজপথে থেকে জাতিকে শত্রæমুক্ত করেছেন। তাঁর এবং তাঁর পরিবারের ত্যাগ জাতিকে ঋনী করে রেখে গেছেন। তাঁর এই ত্যাগ আর দেশপ্রেমকে সামনে রেখে দলের নেতাকর্মীদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে। তাঁর নীতি আদর্শকে ধারণ করে জননেত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়ন করতে হবে।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় দলীয় কার্যালয়ে মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, ১৪দলের সমন্বয়ক ও সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান, মকবুল হোসেন মিন্টু। সভা পরিচালনা করেন দপ্তর সম্পাদক মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ। এসময়ে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা এমডিএ বাবুল রানা, নুর ইসলাম বন্দ, আবুল কালাম আজাদ কামাল, মো. আশরাফুল ইসলাম, কামরুজ্জামান জামাল, শেখ ফজলুল হক, জোবায়ের আহমেদ খান জবা, এ্যাড. খন্দকার মজিবর রহমান, এ্যাড. অলোকা নন্দা দাস, হালিমা ইসলাম, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, অধ্যা. মিজানুর রহমান, হাফেজ মো. শামীম, মালিক সরোয়ার উদ্দিন, মনিরুজ্জামান সাগর, রনজিত কুমার ঘোষ, মো. মোতালেব মিয়া, মীর বরকত আলী, জামিল খান, এস এম আসাদুজ্জামান রাসেল, ইমরান হোসেন, গোপাল চন্দ্র সাহা, ফয়েজুল ইসলাম টিটো, এ্যাড. শামীম মোশাররফ, মুন্সি নাহিদুজ্জামান, শফিকুর রহমান পলাশ০, মামনুন রশীদ, মাহফুজুর রহমান সোহাগ, বলাকা রায়, ইদ্রিস আলী, হোসেনুজ্জামান হোসেন, মো. শাহীন আলম, মাহামুদুর রহমান রাজেশ সহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ে নেতৃবৃন্দ।

স্মরণ সভা শেষে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান, তাঁর সহধর্মিনী আইভি রহমানের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি’র দীর্ঘায়ু ও সুস্থতা কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *