তালা প্রেসক্লাবে ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

 

তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি

তালা প্রেসক্লাবে খলিলনগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলার খলিলনগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নব-গঠিত কমিটির সভাপতি মোঃ জামিরুল ইসলাম।

জামিরুল ইসলাম তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ৩ এপ্রিল উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ সাদী ও সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান সুমন এর স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ১২ নং খলিলনগর ইউনিয়নে ১২ সদস্য বিশিষ্ট একটি আংশিক কমিটি দেওয়া হয়। কিন্তু ৮ এপ্রিল ইউনিয়নের কতিপয় পদ বঞ্চিত নামধারী ছাত্রলীগের ছেলেরা তালা প্রেসক্লাবে একটি সংবাদ সম্মেলন করেন। যেটি পুরা মিথ্যা, বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন। এ সংবাদ সম্মেলনে আমার নামে মিথ্যা ও বানোয়াট একটি মামলার কথা উল্লেখ করা হয় যাহা সঠিক নয়। এটি একটি উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে করে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে হেয়প্রতিপন্ন করার হিন উদ্দেশ্য।

ছাত্রলীগ নেতা আরও বলেন, তারা সংবাদ সম্মেলন করার সময় যারা উপস্থিত ছিলো তারা অধিকাংশ বিবাহিত, অছাত্র এবং ছাত্রদলের সদস্য। তারা পরিকল্পিত ভাবে তালা উপজেলায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি নষ্ট করার লক্ষ্যে হিন্দুদের কমিটিতে দেওয়া হয়না এমন কথা উল্লেখ করেছেন। কিন্তু নব-গঠিত কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রদীপ চক্রবর্তী একজন হিন্দু ব্যক্তি।

এই নেতা অভিযোগ করে বলেন, গত ৯ বছর ১২নং খলিলনগর ইউনিয়নে একটি আহবায়ক কমিটি দ্বারা কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। যার ফলে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক অবস্থা দূর্বল হয়ে পড়েছিলো। সম্প্রতি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যাচাই বাছাই করে করে ১ বছরের জন্য একটি আংশিক কমিটি দিয়েছে যাহা উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা সাদরে গ্রহণ করেছেন। কিন্তু একটি স্বার্থনেষী মহল কোন কারনে এই কমিটিকে মানতে না পেরে বিভিন্ন রকম ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। পদ বঞ্চিত কিছু নেতারা উসকানি দিয়ে একটি মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ সম্মেলন করিয়েছেন। তিনি এর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। এসময় খলিলনগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.