July 19, 2024
আঞ্চলিকলেটেস্ট

ডুমুরিয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচন কাল, চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রার্থী

 

* ২৭ প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে প্রত্যাহারের দাবি আ’লীগ প্রার্থীর

 

দ: প্রতিবেদক

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাচন আগামীকাল মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোট ১৬ জন প্রার্থী মাঠে রয়েছেন। ইতিমধ্যেই শনিবার মধ্যরাত থেকে সব ধরণের প্রচার-প্রচারণা বন্ধ করা হয়েছে। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে ৭ প¬াটুন বিজিবি এবং ৪ প¬াটুন র‌্যাবসহ আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। মোট ৯৪টি কেন্দ্রে ২ লাখ ৪৪ হাজার ৫৭৬জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

নির্বাচনে ৫ চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন- মোস্তফা সরোয়ার (নৌকা), গাজী এজাজ আহমেদ (ঘোড়া), মো. মাহবুবুর রহমান মোল¬া (আনারস), সেলিম আকতার স্বপন (হাতুড়ী) ও শাহনেওয়াজ হোসেন জোয়ার্দার (দোয়াত কলম)। ৮ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন- আব্দুল লতিফ মোড়ল (বাই সাইকেল), এম এ এরশাদ (টিউবওয়েল), জামিল আক্তার লেলিন (মাইক), শেখ মুজিবুর রহমান (উড়োজাহাজ), গোবিন্দ কুমার ঘোষ (তালা চাবি), সুমন ভ্রম্য (বই) ও গাজী আব্দুল হালিম (টিয়া পাখি) এবং ৩ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছেন- শারমিন পারভীন রুমা (কলস), হাসনা হেনা (ফুটবল) ও মাকসুদা আক্তার রাখি (হাঁস)।

এদিকে, শেষ মুহূর্তে এসে নির্বাচনের দায়িত্বে নিয়োজিত ২৭ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে প্রত্যারের দাবি তুলেছেন আওয়ালীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোস্তফা সরোয়ার। গতকাল রবিবার তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে উলি¬খিত ২৭ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তার নামের তালিকা সম্বোলিত লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। অভিযোগে তিনি উলি¬খিত কর্মকর্তাদের ‘একজন বিশেষ ব্যক্তিকে খুশি করতে প্রতিপক্ষ প্রার্থীর পক্ষে বিভিন্ন স্থানে প্রচারনায় দেখা গেছে’ উলে¬খ করে তাদের প্রত্যাহারের দাবি জানান।

এদিকে আওয়ালীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোস্তফা সরোয়ার রিটার্নিং অফিসার বরাবর দাখিলকৃত আবেদনপত্রে উলে¬খ করেন- তিনি বরাবরই প্রিজাইডিং অফিসার নিয়োগ নিয়ে অনিয়মের আশঙ্কার কথা বলে আসছেন। এমনকি ইতোপূর্বে সংবাদ সম্মেলন করেও এসব অভিযোগ করা হয়েছে। তারপরও অভিযুক্ত প্রিজাইডিং অফিসারদের বিভিন্ন কেন্দ্রে নির্বাচনী দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

আবেদনে আরো উলে¬খ করা হয়, অভিযুক্ত প্রিজাইডিং অফিসারদের একজন বিশেষ ব্যক্তিকে খুশি করার জন্য প্রতিপক্ষ প্রার্থীর পক্ষে বিভিন্ন জায়গায় ভোটের ক্যাম্পিং করতে দেখা গেছে। গত একমাস আগে তাদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করা হলেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এসকল অফিসারদের দিয়ে নির্বাচন পরিচালনা করলে ভোট সুষ্ঠু হবে না, প্রশ্নবিদ্ধ হবে। এ অবস্থায় অভিযুক্ত প্রিজাইডিং অফিসার পরিবর্তনের মাধ্যমে নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার দাবি জানানো হয়।

নির্বাচন প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, ডুমুরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ পরিবেশে আয়োজনের জন্য নির্বাচনী এলাকায় র‌্যাব, পুলিশ ও অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর সাথে সাত প¬াটুন বিজিবি মোতায়েন থাকবে। নির্বাচনী এলাকার প্রতি ইউনিয়নে দুই জন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন।

নৌ-যান চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা: ডুমুরিয়া উপজেলায় ৫ম উপজেলা পরিষদ সাধারণ নির্বাচন উপলক্ষে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল হোসেন এক গণবিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, রোববার দিনগত মধ্যরাত ১২টা থেকে ভোটগ্রহণের দিন মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় লঞ্চ, স্পিড বোট ও ইঞ্জিন চালিত সকল ধরনের নৌ-যান চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তবে জনগণ তথা ভোটারদের চলাচলের জন্য ব্যবহৃত ইঞ্জিন চালিত ক্ষুদ্র নৌ-যান এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বে না।

রিটার্নিং অফিসারের অনুমতি সাপেক্ষে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী, তাদের নির্বাচনী এজেন্ট, দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক (পরিচয়পত্র থাকা সাপেক্ষে), নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত দেশ-বিদেশি সাংবাদিক (পরিচয় পত্র থাকতে হবে), নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, নির্বাচনের বৈধ পরিদর্শক এবং কতিপয় জরুরি সেবা যেমন-এ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডাক, টেলিযোগাযোগ ইত্যাদি কার্যক্রমে ব্যবহারের জন্য নৌযান চলাচলের ক্ষেত্রে উক্ত নিষেধাজ্ঞা শিথিলের বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। একই সাথে ভোটার ও জনগণের চলাচলের একমাত্র মাধ্যম হিসেবে নৌ-যান চলাচলের ক্ষেত্রে ও দূর পাল¬ার নৌ-যান চলাচলের ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না। নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *