ডাকাত চক্রের হোতা’ জুয়েলারি ব্যবসায়ী

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

গাজীপুরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এক জুয়েলারি ব্যবসায়ীসহ ‘আন্তঃজেলা ডাকাত চক্রের’ ছয় সদস্যকে আটক করার কথা জানিয়েছে র‌্যাব। র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক সারওয়ার বিন কাশেম গতকাল শুক্রবার ঢাকার কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। গ্রেপ্তাররা হলেন- প্রদীপ পোদ্দার (৪১), মো. দুলাল হোসেন (৩০), মো. রাসেল (২২), জাকির হোসেন (২৬), কোকিলা বেগম (২৪) ও হাজেরা বেগম (৫২)। তাদের কাছ থেকে পাঁচ ভরি সোনার গয়না, চারটি মোবাইল সেট এবং ১১ হাজার টাকা উদ্ধার করার কথা জানানো হয় র‌্যাবের সংবাদ সম্মেলনে।

র‌্যাব অধিনায়ক সারওয়ার বলেন, কয়েক দিন ধরে খবর আসছিল উত্তরা ও টঙ্গীর বিভিন্ন বাসায় ও দোকানে ডাকাতি হচ্ছে। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে অনুসন্ধান চালিয়ে ওই ছয়জনকে আটক করা হয়। র‌্যাব বলছে, গ্রেপ্তার প্রদীপ পোদ্দার এই ডাকাতচক্রের হোতা। টঙ্গীর আলতাব প্লাজার পোদ্দার জুয়েলারির মালিক তিনি।

সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, প্রদীপ জুয়েলারি ব্যবসার আড়ালে ১০/১২ জন ডাকাত পালতো এবং ডাকাতির মালামাল ওই দোকানে রেখে বিক্রি করত। দলের কেউ গ্রেপ্তার হলে উকিল আর তার সংসারর খরচও প্রদীপ দিত।

গ্রেপ্তারদের মধ্যে দুলাল উত্তরা ও গাজীপুরেরে বিভিন্ন স্থানে ফেরি করে কাপড় বিক্রি করতেন। আসলে এলাকাবাসীর গতিবিধি লক্ষ্য করা তার মূল কাজ ছিল বলে র‌্যাবের ভাষ্য। দিনের বেলায় ঘুরে ঘুরে বাসা বা দোকান চিহ্নিত করা হত। রাতে সেখানে ডাকাতি বা চুরি করত তারা। ডাকাতির মালামাল প্রথমে রাখা হত দুলালের স্ত্রী কোকিলা ও মা হাজেরার কাছে। গ্রেপ্তার ছয়জনের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে র‌্যাবের সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.