ডাকসু নির্বাচনে থাকছেন আসিফ-বেনজীর

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
আপিল করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন আলোচিত দুই জিএস প্রার্থী এ আর এম আসিফুর রহমান ও উম্মে হাবিবা বেনজীর। এই দুজনসহ প্রাথমিক যাচাই-বাছাইয়ে বাতিল হওয়া সাতজনের মধ্যে পাঁচজনই প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন বলে ডাকসু নির্বাচনের প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক এস এম মাহফুজুর রহমান জানিয়েছেন। তবে কে কে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন, তা জানাননি তিনি।
অধ্যাপক মাহফুজুর শুক্রবার সন্ধ্যায় বলেন, যারা উপাচার্যের কাছে আবেদন করেছেন তাদের সবার প্রার্থিতা বহাল করা হয়েছে। তাদের ফোন দিয়ে বলে দিয়েছি। আপনারা তাদের সাথে যোগাযোগ করেন। ৩ তারিখে আমরা অফিশিয়ালি বিষয়টা জানাব।
আগামী ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সামনে রেখে ৩ মার্চ চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন। প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ার বিষয়ে কোনো খবর আছে কি না জানতে চাইলে ডাকসুর সাধারণ সম্পাদক পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফুর রহমান বলেন, আমকে ফোন দিয়েছে তারা। তবে প্রার্থিতা পাওয়ার ব্যাপারে আমি নিশ্চিত নই। আমাকে অফিশিয়ালি তারা কিছু জানায়নি। অফিশিয়ালি যেভাবে বাতিল করা হয়েছে সেভাবেই যদি আবার বহাল করা হয় তাহলেই আমি নিশ্চিত হব। রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ফোন পাওয়ার কথা জানিয়েছেন প্রগতিশীল ছাত্রজোটের প্যানেল থেকে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী উম্মে হাবিবা বেনজীর।
ছাত্র ফেডারেশনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি বেনজীর বলেন, আমাকে বিকেলে রিটার্নিং কর্মকর্তার অফিস থেকে ফোন দিয়েছে। আমাকে বলেছে, আপনার আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রার্থিতা বহাল করা হল। আপনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।
এছাড়াও প্রার্থিতা বহাল করা হয়েছে ছাত্রলীগের প্রাথমিক প্যানেল থেকে সদস্য প্রার্থী ইশাত কাশফিয়া ইলার। তবে ভোটার তালিকায় নাম না থাকায় ছাত্রলীগ ইলার পরিবর্তে অন্য একজনকে সদস্য পদে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয়। ছাত্রদলের প্যানেল থেকে সদস্য পদপ্রার্থী সাফায়াত হাসনাইন সাবিতও আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.