ট্রাম্পকে জয়ী করেছে ফেইসবুকের বিজ্ঞাপন!

ডনাল্ড ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করতে ‘দায়ী’ ফেইসবুক, এমনটাই দাবি করেছেন প্রতিষ্ঠানের এক নির্বাহী কর্মকর্তা।

আগের সপ্তাহে প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরীণ মেমোতে প্রধান নির্বাহী জাকারবার্গের নিকট বন্ধু অ্যান্ড্রু বসওর্থ বলেন, ট্রাম্প “ভুল তথ্যের” কারণে নির্বাচিত হননি “নির্বাচিত হয়েছেন কারণ তিনি সবচেয়ে ভালো ডিজিটাল বিজ্ঞাপনী প্রচারণা চালিয়েছেন, কোনো বিজ্ঞাপনদাতার কাছ থেকে আগে এর চেয়ে ভালো বিজ্ঞাপন দেখা যায়নি।”

ওই মেমো পাবলিক করার আগেই এটি নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর কাছে ফাঁস হয় বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

বসওর্থের নোটে ফেইসবুকের বেশ কিছু বড় কেলেঙ্কারি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে, এর মধ্যে ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগের বিষয়টিও রয়েছে।

কর্মীদের উদ্দেশ্যে বসওর্থ বলেন, বিদেশি হস্তক্ষেপের কারণে ট্রাম্প নির্বাচিত হননি, সুপরিকল্পিত প্রচারণার কারণে হয়েছেন।

ফেইসবুকের এই নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রশ্ন করা হয়, “ডনাল্ড ট্রাম্পকে নির্বাচিত করতে ফেইসবুক দায়ী কিনা?” জবাবে ওই কর্মকর্তা বলেন, “আমি মনে করি হ্যাঁ, তবে যে কারণ মনে করা হয় সে কারণে নয়।”

কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা তথ্য কেলেঙ্কারির বিষয় নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অন্যান্য নির্বাহী কর্মকর্তা।

২০১৮ সালের মার্চ মাসে সামনে আসে এই তথ্য কেলেঙ্কারির ঘটনা। লাখো ফেইসবুক অ্যাকাউন্টের তথ্য অপব্যবহারের দায় দেওয়া হয় প্রতিষ্ঠানটিকে।

ফেডারেল ট্রেড কমিশনের তদন্তের পর ২০১৯ সালের জুলাই মাসে ৫০০ কোটি মার্কিন ডলার জরিমানা করা হয় ফেইসবুককে।

মামলায় তদন্তের বিষয় ছিল, সামাজিক মাধ্যম জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি ২০১১ সালের একটি চুক্তি অমান্য করেছে কিনা, যাতে বলা হয়েছে ডেটা শেয়ার করার আগে অবশ্যই গ্রাহককে জানাতে হবে এবং গ্রাহকের স্পষ্ট সম্মতি নিতে হবে।

আগের বছরের রায়ের পরও মেমোতে বসওর্থ বলেন, “ব্যবহারিক দিক থেকে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা পুরোপুরি অঘটন।”

২০১৬ ব্রেক্সিট গণভোটে ভোটারকে প্রভাবিত করার অভিযোগও রয়েছে ফেইসবুকের বিরুদ্ধে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.