টুইটারের গোপন তথ্য ফাঁস করলেই কঠোর ব্যবস্থা: ইলন মাস্ক

এ বছরের অক্টোবরে ইলন মাস্ক টুইটার কিনে নেওয়ার পর থেকেই প্রতিষ্ঠানটিতে ব্যাপক অস্থিরতা দেখা দেয়। একের পর এক ফাঁস হতে থাকে বিভিন্ন তথ্য। এবার তথ্য ফাঁস ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছেন ইলন মাস্ক।

ইলন তার কর্মীদের জানিয়েছেন, যদি কেউ টুইটারের অভ্যন্তরীন কোনো তথ্য বাইরে প্রকাশ করেন, তাহলে ফাঁসকারীর বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। এ বিষয়ে এরই মধ্যে সব কর্মীকে একটি সতর্কতামূলক মেইল পাঠিয়েছেন টুইটারের সিইও।

মেইলে ইলন লেখেন, টুইটারের কয়েকটি গোপন তথ্যফাঁসের মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে, আমাদেরেই কিছু লোক কোম্পানির নীতির বিরুদ্ধে গিয়ে তথ্য গোপন রাখার চুক্তি ভঙ্গ করছেন।’

‘শেষবারের মতো আপনাদের বলছি, যদি কেউ ইচ্ছা করে আমাদের তথ্য গোপন রাখার চুক্তি ভঙ্গ করেন, তাহলে আপনার বিরুদ্ধে টুইটার আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে ও ক্ষতিপূরণ দাবি করবে।’

তবে ইলন তার কর্মীদের জানিয়েছেন, যদি কেউ মুখ ফসকে কিছু বলে ফেলেন, তাহলে সমস্যা নেই। তবে গণমাধ্যমকে বিস্তারিত কোনো তথ্য দিলে, প্রয়োজনীয় সব আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সম্প্রতি শোনা যায়, টুইটারের সানফ্রান্সিসকোর সদর দপ্তরের ভেতরে কর্মীদের থাকার জন্য জায়গা তৈরি করেছেন ইলন মাস্ক। কাজের চাপে বা অতিরিক্ত কাজ করার জন্য যেসব কর্মী বাড়িতে যেতে পারেন না, তাদের জন্যই এমন ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ তথ্য ফাঁস হওয়ার পর, বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। কারণ এতে স্পষ্ট হয়ে ওঠে, কর্মীদের দিয়ে অতিরিক্ত কাজ করাচ্ছেন ইলন মাস্ক।

এ বছরের অক্টোবরে নানা নাটকীয়তার পর টুইটারের মালিকানা কিনে নেন বিশ্বের শীর্ষ ধনি ইলন মাস্ক। তার কর্তৃত্বে যাওয়ার পরপরই প্রতিষ্ঠানটিতে চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। ফাঁস হতে থাকে বিভিন্ন গোপন তথ্য। মূলত টুইটারের নিজস্ব কর্মীরাই অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন তথ্য বাইরে প্রকাশ করে দিতে থাকেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *