February 25, 2024
আঞ্চলিক

টঙ্গীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ র‌্যাবের গুলিতে নিহত ২

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

গাজীপুরের টঙ্গী বাজার এলাকায় মধ্যরাতে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই জন নিহত হয়েছেন, যাদের ‘ছিনতাইকারী’ বলছে র‌্যাব। বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে টঙ্গী সেতুর নিচে এ ঘটনা ঘটে বলে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খানের ভাষ্য।

র‌্যাব বলছে, নিহত দুজন ‘ব্লেড বাবু’ ও ‘নোংরা নান্নু’ হিসেবে ওই এলাকায় পরিচিত। বয়স ২৫ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে।

র‌্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক মো. কামরুজ্জামান বলেন, উত্তরা পূর্ব ও পশ্চিম থানার পুলিশ দীর্ঘদিন ধরে ওই দুইজনকে খুঁজছিল। তাদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, ছিনতাইসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। তারা অত্যন্ত দুর্র্ধষ প্রকৃতির ছিল। ধরতে গেলেই চাকু বা ব্লেড দিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যেত।

ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে র‌্যাব কর্মকর্তা কামরুজ্জামান বলেন, তাদের একটি টহল দল রাতে টঙ্গীসহ আশপাশের এলাকায় টহল দিচ্ছিল। টঙ্গী ব্রিজের উপর ‘একদল ছিনতাইকারী তখন অস্ত্রের মুখে’ ছিনতাই করছিল।

পরে র‌্যাব সদস্যরা এগিয়ে গেলে ছিনতাইকারীরা দৌড়ে ব্রিজের নিয়ে চলে যায়। এক পর্যায়ে র‌্যাব সদস্যরা তাদের পিছু নিলে ব্রিজের নিচে ছিনতাইকারীরা গুলি ছুড়তে শুরু করে। র‌্যাবও তখন পাল্টা গুলি চালায়। ছিনতাইকারী দলের দুজন গুলিবিদ্ধ হলে বাকিরা পালিয়ে যায়।

গুলিবিদ্ধ দুজনকে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল­াহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান কামরুজ্জামান।

তিনি বলেন, এ অভিযানে র‌্যাব-১ এর এএসআই সাইফুল ইসলাম, সৈনিক মো. কামরুল ইসলাম ও সৈনিক মো. রাকিব আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে পায়ে গুলিবিদ্ধ রাকিবকে ঢাকা সিএমএইচে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি, দুটি সুইচগিয়ার, চারটি চাকু ও ছুরি, সাতটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাব কর্মকর্তা কামরুজ্জামান। তিনি বলেন, এ ব্যাপারে পুলিশ অ্যাসল্ট ও অস্ত্র আইনে মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *