ঝিনাইদহে ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
আধুনিকতার এই যুগে অনেকটা হারিয়েই যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য- গরুর গাড়ি। দিন দিন কমে যাচ্ছে এর ব্যবহার। এই হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে, নতুন প্রজন্মকে জানান দিতে ও গ্রামবাংলার মানুষকে খানিকটা আনন্দ দিতে বৃহস্পতিবার ঝিনাইদহের সদর উপজেলার গান্না ইউনিয়নের বেতাই গ্রামে অনুষ্ঠিত হলো গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা। কয়েক হাজার আগত দর্শক মাঠে উপস্থিত থেকে উপভোগ করেন এই খেলা। বিলুপ্ত প্রায় গরু গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে সেখানে সৃষ্টি হয় উৎসবের আমেজ। আর রোমাঞ্চকর এই প্রতিযোগিতা ঘিরে আনন্দ মেলা ছিলো বাড়তি আকর্ষণ।
জানা যায়, গত ৬ বছরের ন্যায় এবারো আয়োজন করে গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা। ঝিনাইদহ, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়া জেলা থেকে ২৫টি গরুর গাড়ি এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হয়ে এই খেলা চলে বিকাল পর্যন্ত। খেলা শুরুর আগ থেকেই হাজার হাজর দর্শক মাঠে জড়ো হয়। দূর-দূরান্ত থেকে আগত নারী, পুরষ, মহিলা ও শিশু উপভোগ করেন এই ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা। খেলা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। প্রথম স্থান অধিকার করেন জেলার বেতাই গ্রামের হরেন্দ্র নাথের ছেলে ডারিম। তাকে পুরস্কার হিসেবে হাতে তুলে দেয়া হয় ২১ ইঞ্চি রঙ্গিন টেলিভিশন। দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন সদর উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের খাকচার মলি­ক। তাকে দেওয়া হয়েছে ১৪ ইঞ্চি রঙিন টেলিভিশন ১টি ও তৃতীয় স্থান অধিকার করেছেন বারোবাজারের জিয়ারুল ইসলাম কে উপহার দেওয়া হয়। ৪র্থ ও ৫ম পুরুস্কারও দেওয়া হয়েছে। পৃষ্ঠপোষক গান্না ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন মালিতা। পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের তোফাজ্জেল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্টান অনুষ্টিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কে) কনক কুমার দাস, সদর থানার ওসি (তদন্ত) এমদাদুল হক, সদর থানার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম হিরন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খালেদা খানমসহ স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.