জাতিসংঘের সন্ত্রাসী তালিকাভূক্ত গ্রুপের বিরুদ্ধে অভিযানের ঘোষণা পাকিস্তানের

পাকিস্তান সোমবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নিষিদ্ধ ঘোষিত বিভিন্ন সংগঠনের সাথে যুক্ত ব্যক্তিদের ব্যাংক একাউন্ট বন্ধ এবং সম্পদ জব্দ করার ঘোষণা দিয়েছে। ভারতের সাথে উত্তেজনার প্রেক্ষাপটে জঙ্গি গ্রুপের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে দেশটির ওপর চাপ বেড়ে যাওয়ায় তারা এমন ঘোষণা দিলো। খবর এএফপি’র।
গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরে ভয়াবহ এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৪০ ভারতীয় সৈন্য নিহত হওয়ায় দক্ষিণ এশিয়ায় উত্তেজনা বাড়ার কয়েক সপ্তাহ পর এ পদক্ষেপের ঘোষণা আসলো। পাকিস্তান ভিত্তিক জঙ্গি গ্রুপ জইশ-ই-মোহাম্মদ এ হামলার দায় স্বীকার করে।
এ ঘটনায় নয়াদিল্লি পাকিস্তানের অভ্যন্তরে বিমান হামলা চালায়। পাকিস্তানের পাল্টা হামলায় ভারতীয় একটি বিমান ভূপাতিত হলে সেটির পাইলট ইসলামাবাদের হাতে আটক হয়। পরে পাকিস্তান ভারতীয় ওই পাইলটকে মুক্তি দেয়। ইসলামাবাদ এই মুক্তিকে একটি ‘শান্তির বার্তা’ হিসেবে অভিহিত করে।
পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তরের এক বিবৃতিতে বলা হয়, সরকার ‘ইউনাইটেড ন্যাশানস সিকিউরিটি কাউন্সিল (ফ্রিজিং অ্যান্ড সিজার) অর্ডার, ২০১৯’ জারি করেছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে পররাষ্ট্র দপ্তরের সিনিয়র এক কর্মকর্তা বলেন, ‘এই নির্দেশনার অর্থ সরকার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নিষিদ্ধ ঘোষণা করা বিভিন্ন সংগঠনের সম্পদ জব্দ এবং তাদের সকল একাউন্ট বন্ধ করে দেবে।
যুক্তরাষ্ট্র কাশ্মীর হামলায় যাদের হাত রয়েছে তাদেরকে শাস্তি দিতে গত মাসে পাকিস্তানকে চাপ দেয়।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.