জবিতে ছাত্রলীগের সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
মামলায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সভাপতি তরিকুল ইসলামের সমর্থক তরিকুল ইসলাম রিমন ওরফে ছোট তরিকুল, সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেলের সমর্থক কামরুল ইসলাম, স্থগিত কমিটির সহ সভাপতি হাসান আহমেদ খান ও ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সহ-সভাপতি আশরাফুল ইসলাম টিটন ছাড়াও অজ্ঞাত আরও শতাধিক জনকে আসামি করা হয়েছে।
কোতয়ালী থানার এসআই খালিদ শেখ বাদী হয়ে মঙ্গলবার এই মামলা করেন বলে নিশ্চিত করেছেন ওসি এবিএম মশিউর রহমান। এদিকে মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডির সহযোগীতায় ক্যাম্পাসে অভিযান চালিয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ দুই ছাত্রলীগ কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এরা হলেন- বাংলা বিভাগের ১৩ ব্যাচের শিক্ষার্থী নাঈম আল অদম্য, রসায়ন বিভাগের ১৩তম ব্যাচের আবু সায়েম। অভিযানে লাঠি, লোহার রডসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ।
ছাত্রলীগের দুই গ্র“পের সংঘর্ষ চলাকালে কর্তব্যরত সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদ ও জড়িতদের শাস্তি, ক্যাম্পাসে সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবিতে দাবিতে মানববন্ধন করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক জোট। মঙ্গলবার বেলা ১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
অপরাধীদের বিরুদ্ধে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেওয়া হয় মানববন্ধন থেকে। মানববন্ধন শেষে সাংবাদিকরা কালো ব্যাজ পরে ক্যাম্পাসে মৌন মিছিল করেন। সোমবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির নেতা ও তাদের অনুসারীদের সঙ্গে সংগঠনটির অন্য অংশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের সময় গুলিবর্ষণ ও হাতবোমার বিস্ফোরণও ঘটে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।
সংঘর্ষের সময় দায়িত্বরত বিশ্ববিদ্যালয় দৈনিক সংবাদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম, দৈনিক সমকালের লতিফুল ইসলাম, বিডি২৪ রিপোর্ট ডটকমের সানাউল­াহ ফাহাদ, জয়নুল আবেদীনসহ সাতজন সাংবাদিক আহত হন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.