February 25, 2024
জাতীয়

ছাগল ছিনতাইয়ের মামলার ছয় আসামিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

কোরবানির ঈদের আগে দুই শতাধিক ছাগল ছিনতাইয়ের অভিযোগ ও টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের আলাদা মামলার ছয় আগমিকে দুই সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট। আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদনের পর বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের হাই কোর্ট বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেয়।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আঞ্জুমান আরা বেগম মুন্নী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। ছয় আসামি হলেন, জসিম, রাতুল, তানভীর, হিরা, তনয় ও পারভেজ।

এর আগে গত ১৯ আগস্ট হাই কোর্টের এই বেঞ্চই এই মামলায় মোহাম্মদপুর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি মুজাহিদ আজমী তান্নাকে চার সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছিল।

এই ছয়জনের জামিন হল কেনা- জানতে চাইলে আসামি পক্ষের আইনজীবী মুন্নী বলেন, এটা আদালতের এখতিয়ার। কেন জামিন দেয়নি, বলতে পারব না। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক বলেন, তান্নার জামিনের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করবেন তারা।

প্রায় ৩০ লাখ টাকা মূল্যের বিভিন্ন রঙের ২১২টি ছাগল ছিনতাইয়ের অভিযোগে গত ১১ আগস্ট রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি তান্নাসহ নয়জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা হয়। ছাগল ছিনতাইয়ের ঘটনায় দণ্ডবিধির ১৪৩, ৩৪১, ৩৬৫, ৩৪২, ৩৮৫, ১৭১ ও ৫০৬ ধারায় মামলাটি করেন পশু ব্যবসায়ী শরিয়তপুরের সখিপুরের চরকুমরিয়া গ্রামের মো. সাইফুল ইসলাম।

আর ঘটনাস্থল থেকে নিবন্ধনহীন পাঁচটি ওয়াকিটকি উদ্ধারের ঘটনায় র‌্যাব-২ এর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার মো. ফারুক হোসেন টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রন আইন -২০০১ এর ৬৬ ধারায় আরেকটি মামলা করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, গত ১১ আগস্ট একদল ব্যবসায়ী যশোরের বারোবাজার পশুরহাট ও ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে ২১২টি ছোটবড় বিভিন্ন রং এর ছাগল নিয়ে ঢাকায় আসেন। চাঁদার দাবিতে অভিযুক্তরা ট্রাকটি মোহাম্মদপুরের বাবর রোডের জহুরি মহল­া এলাকায় আটকে রাখেন।

তারা একটি ক্লাব ঘরে ছাগল ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম, বাবু খান, শেখ সোলেমান, মো. নুরুজ্জামান, ফারুক বিশ্বাস, মোহাম্মদ মাসুদ মণ্ডলকে আটকে রাখেন। খবর পেয়ে র‌্যাব-২ এর টহল দল ঘটনাস্থলে গিয়ে জিম্মিদশা থেকে ব্যবসায়ীদের উদ্ধার করে।

ঘটনাস্থল থেকে ইয়াসির আরাফাত (২৮), জাহিদুল ইসলাম (২৯) ও মো. রায়হানকে (২৭) গ্রেপ্তার এবং তাদের হেফাজতে থাকা ছোট বড় ২১২টি ছাগল ও ৫টি ওয়াকিটকি উদ্ধারের কথা জানায় র‌্যাব। গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা জানায়, তাদের পলাতক সহযোগীসহ তারা অবৈধভাবে ওয়্যারলেস (ওয়াকিটকি) সংগ্রহ করে লাইসেন্স ছাড়াই ব্যবহার করতেন।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *