চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে বাংলাদেশির লাশ

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বারাদী সীমান্তের ভারতীয় অংশে সোমবার সকালের দিকে এক বাংলাদেশির লাশ পড়ে থাকতে দেখা গেছে। পরে অবশ্য দেশটির পুলিশ লাশ নিয়ে গেছে বলে বিজিবি জানিয়েছে। নিহত ওমিদুল ইসলাম (৪০) ওই উপজলোর নাস্তিপুর গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। তার বিরুদ্ধে দামুড়হুদা থানায় চারটি মাদকের মামলা রয়েছে বলে বিজিবি জানিয়েছে।
চুয়াডাঙ্গা-৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের পরিচালক মো. ইমাম হাসান বলেন, নাস্তিপুর গ্রামের বিপরীতে ভারতীয় অংশের ১৫০ গজ ভতেরে ওমিদুলের লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী বিজিবিকে জানায়। বিজিবি যাওয়ার আগেই ভারতের কৃষ্ণগঞ্জ থানার পুলিশ লাশ ঘটনাস্থল থেকে থানায় নিয়ে যায়।
এলাকাবাসীর বরাতে তিনি আরও বলেন, নিহতের শরীরে তিনটি ধারালো অস্ত্রের আঘাত দেখা গেছে। আগের রাতের কোনো এক সময় তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মাদক ব্যবসায়ীদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে জানিয়ে ধারণা এ বিজিবি কর্মকর্তার। লাশ ফেরত চেয়ে বিএসএফকে চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *