গাইবান্ধায় বাস উল্টে নিহত ৫

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে যাত্রীবাহী একটি বাস উল্টে ৫ জন নিহত এবং ১৫ জন আহত হয়েছেন। ঢাকা থেকে লালমনিরহাটের বুড়িমারীগামী বরকত এন্টারপ্রাইজের বাসটির চালক বেপরোয়াভাবে চালাচ্ছিলেন বলে যাত্রীরা পুলিশকে জানিয়েছে। শনিবার ভোররাত ৩টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার জুম্মার ঘর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নিহতদের মধ্যে বাসচালকের এক সহকারীও রয়েছেন। তিনি হলেন লালমনিরহাটের হাতিবান্ধা উপজলার দোয়ানী গ্রামের সোবহান আলীর ছেলে বিদ্যুৎ মিয়া (৩২)।

নিহতরা অন্যরা হলেন রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার উত্তর তাজপুর গ্রামের মান্নান মিয়ার ছেলে রিয়াজ উদ্দীন (২০), লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বোতারছাতা গ্রামের মহসীন আলীর ছেলে মাহবুল ইসলাম (২২), টাঙ্গাইল সদরের বেতকা গ্রামের ভুবন সরকারের ছেলে সুনীল কুমার সরকার (৫০) ও টাঙ্গাইলের কালীহাতি উপজেলার বল­া গ্রামের মৃত ভোলা নাথ সাহার ছেলে বিকাশ চন্দ্র সাহা (৪৮)। আহতদের উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রবিউল ইসলাম জানান, আহতদের মধ্যে ৯ জনের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাদেরকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মো. আখতারুজ্জামান বলেন, বুড়িমারীগামী নৈশকোচটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে উল্টে যায়। এতে বাসের উপরের অংশ পুরো চুরমার হয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই পাঁচজন মারা যান।

আহত যাত্রীদের উদ্ধৃত করে ওসি বলেন, বাসচালকের বেপরোয়া চালানোর কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ বাসটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে গেলেও চালককে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। এই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করেছে। গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রামকৃষ্ণ বর্মন নিহত পাঁচজনের পরিবারকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকা করে সহায়তা দিয়েছেন।

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *