February 25, 2024
জাতীয়

গাইবান্ধায় বন্দুকযুদ্ধে ‘জিনের বাদশা’ নিহত

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন এক ব্যক্তি; তিনি ‘জিনের বাদশা’ পরিচয়ে প্রতারণা চালিয়ে আসছিলেন বলে পুলিশের ভাষ্য। ১৮টি মামলার আসামি চিনু মিয়া (৩৮) নামে ওই ব্যক্তিকে গত বুধবার বিশ্বনাথ গ্রামে গ্রেপ্তার করে গাড়িতে তুললেও তার সহযোগীরা তাকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে পুলিশ জানিয়েছিল।

তার দুদিন পর শুক্রবার সকালে পুলিশ জানায়, ভোর রাতে কাটাখালির বাঁধের সাপগাছি হাতিয়াদহ এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রাণ হারান চিনু।

নিহত চিনু উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামের মৃত নুরু মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা, অস্ত্র আইন, প্রতারণা, চাঁদাবাজি, অপরহণ, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতার অভিযোগে ১৮টি মামলা রয়েছে। গত বুধবার রাত ১০টার দিকে বিশ্বনাথ গ্রাম থেকে চিনুকে আটক করে পুলিশ।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি এ কে এম মেহেদী হাসান সেদিন বলেছিলেন, হ্যান্ডকাপ পরিয়ে চিনুকে পিকআপ ভ্যানে তুলে থানার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছিল পুলিশ। পথে বিশ্বনাথ গ্রামের সাতারপাড়া বাঁধের উপর তার সহযোগী ও স্বজনরা লাঠিসোঁটা ও দেশীয় অস্ত্র হাতে নিয়ে হামলা চালায়। তারা চিনুকে ছিনিয়ে নেয়।  এরপর থেকে চিনুকে গ্রেপ্তারে অভিযানে ছিল পুলিশ।

ওসি মেহেদী বলেন, চিনু মিয়া শুক্রবার গভীর রাতে চরাঞ্চলের দিকে পালিয়ে যাচ্ছিল বলে খবর আসে। তখন পুলিশ সাপগাছি হাতিয়াদহ এলাকায় অবস্থান নেয়। চিনু ও তার সহযোগীরা হাতের নাগালে চলে এলে পুলিশ তাদের আটকের চেষ্টা করে।

তারা তখন পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে তারা (দুর্বৃত্তরা) পিছু হটে যায়। তখন ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ চিনু মিয়া লাশ, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন জানিয়ে ওসি বলেন, তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। চিনুর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা সদর আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *