খুলনা শিপইয়ার্ডের নির্মিত তিনটি ডাইভিং বোট নৌবাহিনীকে হস্তান্তর

দ. প্রতিবেদক
খুলনা শিপইয়ার্ড এ নির্মিতব্য বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জন্য ৩টি ডাইভিং বোট এর কিল লেয়িং অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার খুলনা শিপইয়ার্ড লিমিটেডে (খুশিলি) অনুষ্ঠিত কিল লেয়িংয়ে প্রধান অতিথি ছিলেন রিয়ার এডমিরাল আশরাফুল হক চৌধুরী, এনডিইউ, এএফডব্লিউসি, পিএসসি।
বাংলাদেশে জাহাজ নির্মাণ শিল্পের পথিকৃৎ হিসেবে খুলনা শিপইয়ার্ড লিমিটেড আজ হতে প্রায় ৬২ বছর পূর্বে যাত্রা শুরু করে। এরপর নানা প্রতিকূলতা পেরিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদূর প্রসারী সিদ্ধান্তে বিগত ৩ অক্টোবর ১৯৯৯ প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নিকট হস্তান্তর করা হয়। তৎপরবর্তী সময়ে মৃতপ্রায় এ প্রতিষ্ঠান নৌবাহিনীর দক্ষ ব্যবস্থাপনা ও কর্মীদের কুশলতায় বর্তমানে একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। নৌবাহিনীর নিকট হস্তান্তরের পর এ ইয়ার্ড যুদ্ধ জাহাজসহ সর্বসাকুল্যে ৭৩০টি জাহাজ নির্মাণ ও ২৩৮৩টি জাহাজ মেরামতের কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করেছে। ইয়ার্ডটি ইতোমধ্যেই দেশের মাটিতে যুদ্ধ জাহাজ অর্থাৎ ৫টি প্যাট্রোল ক্র্যাট এবং ২টি লার্জ প্যাট্রোল ক্র্যাফট নির্মাণ করে বাংলাদেশ নৌবাহিনীকে সফলভাবে হস্তান্তর করেছে। এছাড়াও, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জন্য আরও ০৫টি প্যাট্রোল ক্রাফট নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে।
এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জন্য আরও ৩টি ডাইভিং বোট এর কিল লেয়িং অনুষ্ঠান বৃহস্পতিবার সম্পন্ন হয়েছে। এই জাহাজসমূহ দ্বারা ডুবরীদের অপারেশন্স কাজে এবং প্রশিক্ষণে সহায়তা করা ছাড়াও ডাইভিং ট্রিটমেন্ট ইত্যাদি নানাবিধ কার্যক্রমসহ বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সার্বিক অপারেশনাল সক্ষমতা বৃদ্ধি করা সম্ভব হবে। পাশাপাশি সরকারের অগ্রাধিকার প্রাপ্ত নীতি “ব্লু ইকনমি” কে সহায়তার প্রয়াসে সমুদ্রের মূল্যবান সম্পদ আহরণের মাধ্যমে দেশের মূল ভূমির জনগোষ্ঠির অর্থনৈতিক কল্যাণ নিশ্চিত করা সম্ভবপর হবে।

‌দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন/ জে এফ জয়

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *