খুলনা মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুল আহাদের ইন্তেকাল

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক অধ্যক্ষ ডা. মো: আব্দুল আহাদ মোড়ল হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে চিকিৎসার জন্য খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনার পথে তার মৃত্যু হয়।

অধ্যক্ষ আহাদ দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ছিলেন। সর্বশেষ তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। তার এনজিওগ্রাম করার কথা ছিল, কিন্তু তা করা সম্ভব হয়নি।

২০২০ সালে তিনি খুলনা মেডিকেল কলেজ থেকে অবসরে যান। অবসরে যাওয়ার পর তিনি নিজ বাসভবনে জোহরা মেমোরিয়াল নামে একটি ক্লিনিক পরিচালনা করেন। সেখানে থেকে তিনি রোগীদের চিকিৎসা পরামর্শ দিতেন।

আজ বুধবার সকালেও তিনি রোগী দেখেছেন। দুপুরে বিশ্রাম নেন। বিকেলে আবারও রোগী দেখা শুরু করেন। সন্ধ্যার দিকে বুকে ব্যাথা উঠলে সহকারীকে বিষয়টি জানান। সন্ধ্যা ৭ টার দিকে তাকে চিকিৎসার জন্য খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনার পথেই মারা যান তিনি।

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি তিন সন্তানের জনক। বড় ছেলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ইন্টার্নী সম্পন্ন করেছেন। মেজ ছেলে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত। মেয়ে ঢাকায় এমবিবিএস দ্বিতীয় বর্ষে পড়েন।

মৃত্যুর পর তার দেহ জোহরা মেমোরিয়াল ক্লিনিকে নেওয়া হয়। সেখানে তার মরদেহ শেষবারের মতো দেখার জন্য ভিড় করছেন শুভাকাঙ্খিরা।

ইঞ্জিনিয়ার মশিউজ্জামান খান জানান, আমার ভগ্নিপতি খুলনা মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মরহুম ডাঃ মোঃ আব্দুল আহাদের নামাজে জানাজা বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় খুলনা মেডিকেল কলেজে, সকাল ১০টায় নিজ বাড়ি জোহরা মেমোরিয়াল ক্লিনিকের পিছনের মসজিদ সংলগ্ন জায়গায় এবং জোহর বাদ তালা থানার সুমুজদিপুর নিজ বাড়িতে অনুষ্ঠিত হয়ে সেখানেই দাফন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.