February 26, 2024
আঞ্চলিকবিজ্ঞপ্তিলেটেস্ট

খুলনা জেলা আ’লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

খবর বিজ্ঞপ্তি
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ খুলনা জেলা শাখার কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরী সভা সোমবার বেলা ১১ টায় দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্ব করেন জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব শেখ হারুনুর রশিদ। পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত অধিকারী। সভাপতি স্বাগত বক্তব্য দিয়ে জরুরী প্রয়োজনে সভাস্থল ত্যাগ করেন। পরবর্তীতে ১নং সহ-সভাপতি এ্যাড. সোহরাব আলী সানা সভায় সভাপতিত্ব করেন।
সভায় বক্তৃতা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এ্যাড. এমএম মুজিবর রহমান, এ্যাড. রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, বিএমএ সালাম, মোস্তফা কামাল পাশা খোকন, এ্যাড. নিমাই চন্দ্র রায়, রফিকুর রহমান রিপন, আক্তারুজ্জামান বাবু এমপি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু, কামরুজ্জামান জামাল, এ্যাড. ফরিদ আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার আবু সালেহ, প্রচার ও আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট নব কুমার চক্রবর্তী, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান কালু, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক শ্রীমন্ত অধিকারী রাহুল, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ মো. শেখ শহীদ উল্লাহ্, শেখ শহিদুল ইসলাম, অসিত বরণ বিশ্বাস, ফারহানা হালিম।
সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা কাজী বাদশা মিয়া, অধ্যক্ষ দেলোয়ারা বেগম, এস এম খালেদীন রশিদী সুকর্ন, জোবায়ের আহম্মেদ খান জবা, এমএ রিয়াজ কচি, এ্যাড. শাহ আলম, শেখ মো. রকিকুল ইসলাম লাবু, কাজী শামীম আহসান, মোজাফফর মোল্যা, খায়রুল ইসলাম, সায়েদুজ্জামান সম্রাট, ননী গোপাল মন্ডল, শেখ আকরাম হোসেন, আনোয়ার ইকবাল মন্টু, অধ্যক্ষ ফ ম সালাম, জাহাঙ্গীর হোসেন মুকুল, বিলকিস আক্তার ধারা, শিউলি সরোয়ার, শাহিনা আক্তার লিপি, ফারজানা নিশি, অমিয় অধিকারী, আনিসুর রহমান মুক্ত, মোঃ আজগর বিশ্বাস তারা, মোঃ জামিল খান প্রমুখ।
প্রধানমন্ত্রীকে জড়িয়ে বিতর্কিত বক্তৃতা দেওয়ায় তেরখাদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এফ এম অহিদুজ্জামানকে সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। একইসাথে কেন তাঁকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না, ১০ দিনের মধ্যে ব্যাখ্যা চেয়ে নোটিশ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
অপরদিকে তেরখাদা উপজেলা আওয়ামী লীগের ১নং সহ-সভাপতিকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। সভায় আগামী সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে বর্ধিত সভার আহবান করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। জেলার বিভিন্ন উপজেলার কিছু অভিযোগ, যা আগামী মিটিং এ এজেন্ডা আকারে আনা হবে।

দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিন/ জে এফ জয়

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *