June 12, 2024
আঞ্চলিক

খুলনায় সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা  ‘সাদ অনুসারীদের সাথে আলমী সূরা অনুসারীদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই’

 

দ: প্রতিবেদক

আগামী ১৪ মার্চ তিন দিনব্যাপী জেলা ইজতেমার নামে ভ্রান্ত (মাওলানা সাদ অনুসারীদের পক্ষ থেকে প্রচারিত) বিভ্রান্তিমূলক প্রচারণার প্রতিবাদে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুর ১২টায় ক্লাবের হুমায়ূন কবীর বালু মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মুফতি আবদুল্লাহ ইয়াহইয়া।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়েছে, রূপসার জাবুসায় ফারুক জুট মিল চত্বরে তিন দিনব্যাপী জেলা ইজতেমার জন্য চলছে মাঠ প্রস্তুতির কাজ। কিন্তু ওই ইজতেমার সাদ অনুসারীদের সাথে আলমী সূরা অনুসারীদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। গত বছর পহেলা ডিসেম্বর বিশ্ব ইজতেমা মাঠে ওয়াসিফ ও নাসিমের নেতৃত্বে তার পোষ্য বাহিনী তাবলীগের সাথী ও আলেম উলামাদের উপর নির্মমভাবে হামলা চালিয়ে সহস্রাধিক সাথীকে আহত করা হয়েছে। এদের মধ্যে অনেকে আজও পঙ্গুত্ববরণ করছে। মানবেতর জীবন-যাপন করছেন পঙ্গু সাথীরা; যা তাবলীগ ইতিহাসে কলঙ্কিত অধ্যয়। সেই হামলাকারীদের একটি গ্রæপ আগামী ১৪, ১৫ ও ১৬ মার্চ রূপসার জাবুসায় ফারুক জুট মিল চত্বরে তিন দিনব্যাপী জেলা ইজতেমা করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। যা তাবলীগ জামাতের চলমান সংকটকে তীব্র করবে।

আরও বলা হয়েছে, মাওলানা সাদ সাহেবের কোরআন সুন্নাহ বহির্ভূত কিছু বিভ্রান্তিমূলক ও আপত্তিকর বক্তব্যের কারণে ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দসহ সারা বিশ্বের আহলে হক উলামায়ে কেরাম তার বিপক্ষে এবং কোরআন ও সুন্নাহ’র পক্ষে অবস্থান নিতে বাধ্য হয়েছেন। এসব কারণে খুলনা জেলার সর্বস্তরের উলামায়ে কেরাম, তাবলীগ সাথী ও সাধারণ ধর্মপ্রাণ মুসলামানদের সাথে রূপসার ভ্রান্ত মতবাদের ইজতেমার সাথে কোনো প্রকার সম্পৃক্ততা নেই। যার কারণে এটা পথভ্রষ্ট ও সাদ পন্থীদের তথাকথিত ইজতেমা।

সংবাদ সম্মেললে নগরীর তাবলীগ মরকায মসজিদের সূরা সদস্য কাজী মোহাম্মদ তারেক, মাদানীনগর মাদরাসা শিক্ষক মুফতি মাহমুদ, ফুলবাড়ি গেটস্থ মাদরাসা মুহতামিম মুফতি গোলামুর রহমান, তাবলীগের সাথী মাওলনা তাফসীর উদ্দিন আহমেদ, আবু মুছা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নগরীর নিরালাস্থ তাবলীগ মারকায মসজিদের সূরা সদস্য কাজী মোহাম্মদ তারেক বলেন, ‘আগামী ১৪ মার্চ থেকে মাওলানা সাদ অনুসারীরা রূপসা খানজাহান আলী (রহ:) সেতুর বাইপাস সড়কে রূপসার জাবুসায় ফারুক জুট মিল চত্বরে তিন দিনব্যাপী যে জেলা ইজতেমার আয়োজন করা হচ্ছে ওই ইজতেমার সাদ অনুসারীদের সাথে আলমী সূরা অনুসারীদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।’

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *