খুলনায় তিন বস্তা বিক্রি নিষিদ্ধ ঔষধসহ আটক ১ : জরিমানা

দ: প্রতিবেদক

খুলনায় বিক্রি নিষিদ্ধ ৩ বস্তা ঔষধ (ফিজিশিয়ান স্যাম্পল) পাচারের সময় মোঃ আসিফ শেখ (২৪) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গতকাল রবিবার দুপুরে নগরীর মজিদ সরণী এলাকার ফর্টিস হাসপাতালের সামনে ইজিবাইক থেকে এসব ঔষধ উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, বিভিন্ন কোম্পানির এসব ফিজিশিয়ান স্যাম্পল ঔষধ বাজারে ছাড়ার আগে রোগীদের ওপর পরীক্ষার উদ্দেশ্যে চিকিৎসকদের দেয়া হয়। যা ওষুধের দোকানে বা সাধারণ মানুষের কাছে সরবরাহ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। কিন্তু নিয়ম না মেনে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী এ ধরণের ঔষধ বিক্রি করছেন।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, আটক মোঃ আসিফ শেখ ডুমুরিয়া উপজেলার কালিকাপুর গ্রামের ফয়জুল শেখের ছেলে। সে বেশ কিছুদিন খুলনার হেরাজ মার্কেটে ঔষধ বিক্রির কাজ করেছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে বিক্রি নিষিদ্ধ এসব ঔষধ ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে কিনেছে বলে জানিয়েছে।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ (কেএমপি)’র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (আরসিডি) শেখ মনিরুজ্জামান মিঠু এ প্রতিবেদককে জানান, সোনাডাঙ্গা থানাধীন ফর্টিস হাসপাতালের সামনের রাস্তায় ইজিবাইক থেকে তিন বস্তা ঔষধসহ আসামীকে আটকের পর ভ্রাম্যমান আদালতের সামনে তাকে হাজির করা হয়। অতঃপর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান খান ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে এক মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.