February 25, 2024
আঞ্চলিক

খানজাহান আলী, দৌলতপুর ও আড়ংঘাটা থানায় ৬৪টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি

চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ

 

মিয়া বদরুল আলম

সনাতন হিন্দু ধর্মাম্বালীদের সব থেকে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে নগরীর খানজাহান আলী, দৌলতপুর এবং  আড়ংঘাটা থানা এলাকার ৬৪টি পুজা মন্ডপে চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ। কারিগররা নিখুত ভাবে প্রতিমা তৈরী কাজ করতে ব্যস্ত সময় পার করছে। কঠোর পরিশ্রম আর রাতদিন কাজ করে চলেছে কারিগররা। এবারের খানজাহান আলী থানা এলাকায় রয়েছে ৫টি, দৌলতপুর থানা এলাকায় ১৯টি এবং আড়ংঘাটা থানা এলাকায় রয়েছে ৪০টি পূজা মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজার আয়োজন চলছে বলে আইন শৃংখলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থা এবং সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ এই উৎসবকে সামনে রেখে মন্দির গুলোতে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কেএমপির বিশেষ নিরাপত্তায় প্রদত্ত নিদের্শনা প্রদান করেছে।

আগামী ৪ অক্টোবর শুক্রবার মহাষষ্ঠী পূজার মধ্যে দিয়ে শারদীয় দুর্গাউৎসবের সুচনা এবং ৮ অক্টোবর মঙ্গলবার দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে পাঁচদিন ব্যাপী দুর্গাপূজা সম্পন্ন হবে। খানজাহান আলী থানা এলাকায় যে ৫টি পুজা মন্ডপে সারদীয় এ উৎসব উৎযাপন করা হবে সে গুলো হলোঃ দক্ষিণ গিলাতলা বারইপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, আটরা পালপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির, মশিয়ালী বারুইপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির, ইষ্টার্ণগেট বাপতলা বুড়োমায়ের সার্বজনীন পূজা মন্দির, গিলাতলা দক্ষিণপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির। আড়ংঘাটা থানা এলাকায় ৪০টি স্থানে সারদীয় দূর্গাপূজার আয়োজন করা হয়েছে এগুলো হলোঃ আড়ংঘাটা সার্বজনীন কেন্দ্রীয় পূজা মন্দির, আড়ংঘাট সার্বজনীন কেন্দ্রীয় পুজা মন্দির. আড়ংঘাটা কাপালীপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির, রংপুর শিমুলতলা সার্বজনীন পূজা মন্দির, রংপুর শিমুলতলা দক্ষিণপাড়া সার্বজনীন মাতৃ মন্দির, শলুয়া বাজার সার্বজনীন পুজা মন্দির, শলুয়া ঢালীপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির,শলুয়া নীমতলা সার্বজনীন পুজা মন্দির, পাহাড়পুর গাছতলা সার্বজনীন পূজা মন্দির, পাহাড়পুর পুর্বপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, রংপুর কালীতলা সার্বজনীন পূজা মন্দির, ঘরামীপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির, রংপুর সবুজ সংঘ সার্বজনীন মাতৃ মন্দির, রংপুর গাজীতলা সার্বজনীন পূজা মন্দির, রংপুর ঠাকুরাণীতলা সার্বজনীন মাতৃ মন্দির, রংপুর বকুলতলা সার্বজনীন পূজা মন্দির, রংপুর কল্যাণী সংঘ সার্বজনীন মাতু মন্দির, রংপুর সাড়াতলা নতুন সংঘ সার্বজনীন মাতৃ মন্দির, রংপুর কালিবাটী সার্বজনীন পূজা মন্দির, রংপুর ভাগ্যভিটা শাপলা সংঘ সার্বজনীন মাতৃ মন্দির, লতা সার্বজনীন পূজা মন্দির, খামারবাটা সার্বজনীন পুজা মন্দির. খামারবাটা উত্তরপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির. লাইনবিল পাবলা সার্বজনীন পুজা মন্দির. পুর্ববিল পাবলা সার্বজনীন পুজা মন্দির. উত্তর বিল পাবলা সার্বজনীন পুজা মন্দির. বটবেড়া পুর্বপাড়া  সার্বজনীন পুজা মন্দির. বটবেড়া পশি^মপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির. বারানসী সুর্যতরুন সংঘ সার্বজনীন পুজা মন্দির. মুজারঘাটা সার্বজনীন পুজা মন্দির. মুজারঘোটা বৈরাগীবাড়ী. রায়েরমহল পুজা অর্চনা সংঘ. রায়েরমহল সার্বজনীন হরী মন্দির. তেলিগাতী শ্রী শ্রী নেপাল আশ্রম পুজা মন্দির. ডাকাতিয়া মধ্যপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির. ডাকাতিয়া ঠাকুনাণীতলা সার্বজনীন পুজা মন্দির, সারাভিটা ঢালীবাড়ী সার্বজনীন মাতৃ মন্দির. রংপুর হাজারী তলা সার্বজনীন পুজা মন্দির. রংপুর বিশ^াস পাড়া সার্বজনীন মাতৃ মন্দির. শ্রী শীতলতলা সার্বজনীন মাতৃ মন্দির এবং দৌলতপুর থানা এলাকায় ১৯টি মন্ডপে প্রতিমা তৈরী কাজ শেষ পর্যায়ে এ গুলো হলো দৌলতপুর পাবলা সার্বজনীন কালীবাড়ী মন্দির, পাবলা বনিকপাড়া গাছতলা সার্বজনীন পুজা মন্দির, জয় মা রাধা বিনোদিনী সার্বজনীন দুর্গা মন্দির, মাতৃ মন্দির, দৌলতপুর  রিশিপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, দেয়ানা দাসপাড়া  সার্বজনীন পূজা মন্দির, পাবলা মধ্যপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, পাবলা সাহাপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, সরকারি বিএল কলেজ পুজা মন্দির, মহেশ^রপাশা কালীবাড়ী পুজা মন্দির, মহেশ^রপাশা বনিকপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, মহেশ^রপাশা উত্তর বনিকপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির, মহেশ^রপাশা মজুমদার পাড়া সার্বজনীন চন্ডি মন্দির, মহেশ^রপাশা ঘোষপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির. মহেশ^রপাশা সেনপাড়া সার্বজনীন পুজা উৎযাপন পরিষদ.  মহেশ^রপাশা মধ্য সেনপাড়া পুজা মন্দির.  মহেশ^রপাশা সাহাপাড়া শ্রী শ্রী শীতলা মায়ের মন্দির. মহেশ^রপাশা রিশিপাড়া দুর্গাপুজা মন্দির. মহেশ^রপাশা রিশিপাড়া সার্বজনীন পুজা মন্দির।

তেলিগাতী শ্রী শ্রী নেপাল আশ্রম পূজা মন্দির কমিটির সভাপতি শ্রী দেবাশীষ মন্ডল(উজ্জল) বলেন, প্রতিমা তৈরীর কাজ চলছে প্রায় সম্পন্নের পথে এর পর প্রতিমার গয়ে রং তুলির সোয়া দেওয়া হবে। এখানকার সম্প্রদায়িক সম্প্রতি খুবই ভালো হিন্দু মুসলিম সকলে মিলে পাচ দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার মধ্যে দিয়ে এ উৎসব পালন করা হয়। আইন শৃংখলা ভালো রয়েছে তবে পূর্ব সতর্কতা স্বরুপ পুলিশি নিয়মিত টহল এখন পর্যন্ত তেমন চোখে পড়েনি।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *