খন্দকার মোশতাককে ‘শ্রদ্ধা’ : অধ্যাপক রহমত উল্লাহকে অব্যাহতি

মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর খুনি খন্দকার মোশতাককে ‘শ্রদ্ধা’ জানানোর অভিযোগে ঢাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. রহমত উল্লাহকে একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (২০ এপ্রিল) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে আয়োজিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে একাধিক সিন্ডিকেট সদস্য ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে তারা জানান, সিন্ডিকেটে আজ প্রথমে অধ্যাপক রহমত উল্লাহর বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনা হয়। পরে তাকে একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। এ ঘটনায় সিন্ডিকেটের পক্ষ থেকে উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামালকে প্রধান করে ৫ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। একইসঙ্গে অধ্যাপক রহমত উল্লাহর কাছ থেকে তার বক্তব্যের ব্যাখ্যাও চেয়েছে সিন্ডিকেট।

এদিকে একই ঘটনায় অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহর কাছে ব্যাখ্যা দাবি করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতিও।

গত ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভায় অধ্যাপক মো. রহমত উল্লাহ তার বক্তব্যে খন্দকার মোশতাককে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠে। ওই সভাতেই উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান ড. রহমত উল্লাহর বক্তব্যটি ‘এক্সপাঞ্জ’ করেন।

এ ঘটনার বিচার দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। সেখানে তারা অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহর শাস্তির দাবি জানায়।

খন্দকার মোশতাককে ‘শ্রদ্ধা’ জানানো অনিচ্ছাকৃত ভুল বলে সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে দুঃখ প্রকাশ ও ক্ষমা প্রার্থনা করেন অধ্যাপক রহমত উল্লাহ।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.