ক্ষমতায় থেকে কী করেছেন, এমএলএকে প্রশ্ন করায় যুবককে থাপ্পড়

গত কয়েক বছর ক্ষমতায় থেকে কী করেছেন, প্রশ্ন করায় এক যুবককে একের পর এক কিল-ঘুষি-থাপ্পড় মারলেন ভারতের এক রাজনীতিবিদ। শুধু তিনিই নন, মারধরে অংশ নিয়েছেন পাশে থাকা পুলিশসহ অন্য সমর্থকরাও। এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল এ ঘটনার ভিডিও।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে জানা যায়, অভিযুক্ত নেতার নাম জগিন্দর পাল। তিনি পাঞ্জাব বিধানসভায় কংগ্রেস দলীয় সদস্য।

ভিডিওতে দেখা যায়, জগিন্দর পাল পাঠানকোট জেলার ভোয়ায় একটি অনুষ্ঠাতে বক্তব্য রাখছেন। এসময় ভিড়ের মধ্য থেকে এক যুবক কিছু একটা বলে তার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তবে তখন তেমন কোনো প্রতিক্রিয়া না দেখিয়ে বক্তব্য অব্যাহত রাখেন এমএলএ জগিন্দর।

এরপর এক পুলিশ কর্মকর্তা ওই যুবককে অনুষ্ঠানস্থল থেকে চুপচাপ বের করে দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু সেই যুবক কথা বলতেই থাকেন।
একপর্যায়ে তিনি চিৎকার করে নেতার উদ্দেশে বলেন, আপনি সত্যিই কী করেছেন?

তখন কংগ্রেস নেতা শান্তভাবে ওই যুবককে কাছে ডাকেন। যুবক কাছে গেলে প্রথমে তার হাতে মাইক্রোফোন তুলে দেন। এরপর আচমকা চড় থাপ্পড় মারতে শুরু করেন।

এসময় যে পুলিশ কর্মকর্তা যুবককে সরিয়ে নিতে চেয়েছিলেন, তিনিও মারধরে যোগ দেন। এমনকি পাশে থাকা লোকজনও যুবককে কিল-ঘুষি মারেন। শেষপর্যন্ত আরেক পুলিশ কর্মকর্তা এগিয়ে এসে যুবককে গণপিটুনি থেকে বের করে নিয়ে যান।

রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুখজিন্দর সিং রন্ধাওয়া বলেছেন, একজন এমএলএ’র এ ধরনের আচরণ করা উচিত হয়নি। কারণ আমরা জনগণের প্রতিনিধি এবং তাদের সেবা করার জন্যই এখানে এসেছি।

কয়েক মাস পরেই অনুষ্ঠিত হতে চলেছে পাঞ্জাবের বিধানসভা নির্বাচন। এ অবস্থায় কংগ্রেস নেতার এমন কাণ্ড রাজ্যটিতে ক্ষমতাসীন দলকে কিছুটা বিব্রতকর অবস্থাতেই ফেললো।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *