কুয়েতে বাংলাদেশি শ্রমিকদের দূতাবাস ভাঙচুর, আহত ৩

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
কুয়েতে বেতনের দাবিতে বাংলাদেশ দূতাবাস ভাঙচুর করেছে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা, এতে কাউন্সেলরসহ তিনজন আহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকালে দেশটির ‘লেসকো কোম্পানিতে’ কর্মরত বাংলাদেশি শ্রমিকরা বেতন ও আকামার দাবিতে দূতাবাসে অবস্থান করেন, এসময় শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে ভাঙচুর করলে কাউন্সেলরসহ আহত হন তিনজন।
এ খবরে কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ওইদিন সকালে ওই কোম্পানির প্রায় চারশ বাংলাদেশি শ্রমিক দূতাবাসে অবস্থান করছিলো।
শ্রমিকরা রাষ্ট্রদূতের কাছে তাদের বকেয়া বেতন ও আকামা সমস্যার অভিযোগ দেন। সেই প্রেক্ষিতে রাষ্ট্রদূত কোম্পানির সঙ্গে কথা বলে তাদের এ সমস্যা দ্রুত সময়ে সমাধান করার আশ্বস্ত দেন। এ ব্যাপারে কোম্পানি কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে একটি লিখিত আশ্বাসপত্রও নেন বলে জানান রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালাম।
সেসময় রাষ্ট্রদূত শ্রমিকদের কর্মস্থলে ফিরে যেতে অনুরোধ করেন। কিন্তু শ্রমিকরা দূতাবাস থেকে বের হওয়ার সময় উত্তেজিত হয়ে দূতাবাসের বাইরে ও ভেতরে টিভি, কম্পিউটারসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। এতে দূতালয় প্রধান কাউন্সেলর মোহাম্মদ আানিসুজ্জামানসহ আরও দুজন আহত হন। স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে বলে জানান রাষ্টদূত এস এম আবুল কালাম।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *