কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

 

 

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

হেরোইন রাখার অপরাধে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে কুষ্টিয়ার একটি আদালত। একই মামলায় আওর দুইজনকে পাঁচ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। গতকাল রবিবার জেলা ও দায়রা জজ অরূপ কুমার গোস্বামী আসামিদের উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।

এছাড়া যাবজ্জীবন দণ্ডিতকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে, যা অনাদায়ে তাকে আরও এক বছর কারাভোগ করতে হবে। অপর দুই দণ্ডিতকেও আরও ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে, যা অনাদায়ে তাদের আরও ছয় মাস করে কারাভোগ করতে হবে।

যাবজ্জীবন দণ্ডিত জিয়াউর রহমান  ওরফে জিয়া(৪৫) দৌলতপুর উপজেলার আল­ারদরদা চামনায় গ্রামের মৃত সুখচাঁদ মন্ডলের ছেলে। পাঁচ বছর দণ্ডিতরা হলেন একই গ্রামের মৃত জাদু মন্ডলের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৩৫) এবং সোনাইকুন্ডি গ্রামের মৃত সিফাত মন্ডলের ছেলে সাজ্জাদ মন্ডল (৪৮)।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২০ নভেম্বর দুপুরে কুষ্টিয়া মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি দল দৌলতপুর উপজেলার চামনায় গ্রামের আসামি আব্দুল রাজ্জাকের বাড়ি থেকে জিয়া ও সাজ্জাদ মন্ডলকে ৫০ গ্রাম হেরোইনসহ আটক করে।

কুষ্টিয়া জজ আদালতের সরকারি আইনজীবী অনুপ কুমার নন্দী বলেন, তাদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক তারেক মাহমুদ বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন। তদন্ত শেষে ২০১৮ সালের ২৭ ফেব্র“য়ারি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.