কুষ্টিয়ায় ‘ইউনানি ওষুধ খেয়ে’ শিশুসহ ২ জনের মৃত্যু

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় ইউনানি ওষুধ খেয়ে দুইজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে; অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও একজন। রোববার রাত ১০টার দিকে উপজেলার বহলবাড়ীয়া ইউনিয়নের খাড়ারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে মিরপুর থানার ওসি আবুল কালাম জানান। মৃতরা হলো- খাড়ারা গ্রামের পলান শেখের ছেলে নূর মহাম্মদ (৫০) ও একই এলাকার নবাব আলীর মেয়ে শামীমা (৯)। নবাব আলীকে কুষ্টিয়া জেনারেল হসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নবাবের ভাই মিজান বলেন, রোববার রাতে তার ভাইয়ের বাসায় টেলিভিশন দেখতে যান প্রতিবেশী নূর মহাম্মদ। এ সময় নবাব আলীর কাশি হলে তিনি ‘নবীন ল্যাবরেটরির’ তৈরি ‘মেরি গোল্ড’ নামের ইউনানি কাশির সিরাপ খান। একই সময় ওই সিরাপ নবাবের মেয়ে শামীমা এবং নূর মহাম্মদও খান।কিছুক্ষণের মধ্যেই শামীমা অসুস্থ্ হয়ে পড়লে তাকে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দুই মাস আগে ভেড়ামারার একটি ওষুধের দোকান থেকে ওই সিরাপ তার ভাই কিনে আনেন বলে মিজান জানান।

ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক তাপস কুমার সরকার বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই মেয়েটি মারা যায়; হাসপাতালে নেওয়ার পথে নূরের মৃত্যু হয়। আর নবাব চিকিৎসাধীন রয়েছেন, তবে তিনি শঙ্কামুক্ত নন।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার মিজানুর রহমান বলেন, ওই তিনজন ‘মেরি গোল্ড’ নামের একটি ইউনানি সিরাপ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল বলে তাদের স্বজনেরা জানিয়েছেন। ময়নাতদন্তের জন্য দুইজনের লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। পুলিশ ওধুষের বোতলটি জব্দ করেছে বলে ওসি জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.