কিশোরগঞ্জে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে ‘ধর্ষণ’, আটক ১

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলায় পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে পঞ্চাশোর্ধ্ব এক ব্যক্তিকে আটক করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।  রোববার রাতে কানন মিয়াকে (৫২) আটক করা হয়। গতকাল সোমবার জেলার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম বেগম ওবায়দা খানমের আদালতে হাজির করলে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেওয়া হয়। দিনমজুর কানন মিয়া করিমগঞ্জ উপজেলার বারঘড়িয়া ইউনিয়নের তুলশিয়া গ্রামের মৃত আবু তাহেরের ছেলে।

করিমগঞ্জ থানার ওসি মমিনুল ইসলাম বলেন, শনিবার সন্ধ্যায় মেয়েটিকে ফুসলিয়ে স্থানীয় একটি হাওরের কাছে নিয়ে কানন মিয়া ধর্ষণ করে। ওই সময় শিশুটির চিৎকার শুনে স্থানীয় এক নারী এগিয়ে গেলে কানন দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ওসি বলেন, বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর শিশুটিকে প্রথমে করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় রোববার রাতে মেয়েটির মা বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে কানন মিয়াকে আসামি করে করিমগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে ওসি জানান। এরপর রাতেই কানন মিয়াকে পুলিশ আটক করে বলে জানান ওসি মমিনুল।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই অজিত বর্মণ বলেন, কাননকে আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিন হেফাজতের (রিমান্ড) আবেদন করা হয়েছে। তবে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়নি। পরে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেওয়া হয়।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.