May 20, 2024
জাতীয়

কারাগারে আজহারের সঙ্গে দেখা করে গেলেন আইনজীবীরা

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

মুক্তিযুদ্ধকালীন রংপুর অঞ্চলের ত্রাস এটিএম আজহারুল ইসলামের মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকার রায় আসার পর গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে এসে তার সঙ্গে দেখা করে গেলেন আইনজীবীরা।কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারের জেলার বিকাশ রায়হান জানান, পাঁচজন আইনজীবীর একটি দল গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কারাগারে এসে আজহারের সঙ্গে দেখা করেন।

তারা ১৫ মিনিটের মত ছিলেন। আপিল বিভাগের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করার বিষয়ে তাদের কথা হয়েছে এবং আজহারুল ইসলাম তাতে সম্মতি দিয়েছেন বলে আইনজীবীরা জানিয়েছেন। তবে পরিবারের কেউ রায়ের পর এই জামায়াত নেতার সঙ্গে দেখা করতে আসেননি বলে জেলার বিকাশ রায়হান জানান।

অ্যডভোকেট মতিউর রহমান আকন্দের নেতৃত্বে এই আইনজীবী দলে ছিলেন গিয়াস উদ্দিন মিঠু, মোহাম্মদ ইউসুফ, এসএম কামালউদ্দিন ও আবদুর রজ্জাক। মতিউর রহমান পরে বলেন, রায়ের পর উনার নির্দেশনা জানার জন্যই দেখা করতে এসেছিলাম। উনি বলেছেন আইনের যে পরবর্তী ধাপ আছে, অর্ধাৎ রিভিউয়ের ব্যবস্থা নিতে।

একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের দায়ে প্রায় পাঁচ বছর আগে এটিএম আজহারকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। বৃহস্পতিবার আপিলের রায়েও তার সেই সাজা বহাল থাকে।  জামায়াতের সাবেক সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আজহার একাত্তরে ছিলেন ইসলামী ছাত্র সংঘের জেলা কমিটির সভাপতি এবং আলবদর বাহিনীর রংপুর শাখার কমান্ডার।

সে সময় তার নেতৃত্বেই বৃহত্তর রংপুরে গণহত্যা চালিয়ে ১৪ শ’র বেশি মানুষকে হত্যা, অপহরণ, নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছিল বলে এ মামলার বিচারে উঠে আসে। আজহারের প্রধান আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বৃহস্পতিবারই জানিয়েছিলেন, রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি পেলে তারা রিভিউ (রায় পর্যালোচনা) আবেদন করবেন।

নিয়ম অনুযায়ী আসামি এই রায় পর্যালোচনার আবেদন করতে পারবেন। তাতে সর্বোচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত না বদলালে আসামি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাইতে পারবেন। তাতেও তিনি বিফল হলে সরকার সাজা কার্যকরের পদক্ষেপ নেবে।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *