কলারোয়ায় সেনা সদস্যের বাড়ীতে হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ২

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় সন্ত্রাসীরা সেনা সদস্যের বাড়ীতে হামলা চালিয়েছে বাড়ী ঘর ভাংচুর করে তার পিতা মাতাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় দুই সন্ত্রাসীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। রোববার সকালে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।
থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জেল্লাল হোসেন রোববার সকালে জানান, উপজেলার সোনাবাড়ীয়া গ্রামের সেনা সদস্য শফিকুর রহমান শফিকের বাড়ীতে গত শনিবার বেলা ১১টার দিকে হামলা করে ভাংচুর করে। এসময় সন্ত্রাসীরা তার পিতা ও মাতাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় ওই দিন কলারোয়া থানায় উপজেলার সোনাবাড়ীয়া গ্রামের মৃত ছায়েল গাজীর ছেলে নুর ইসলাম (৪০) ও নূর হোসেন (৩৫)কে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের হয়। পরে থানার এসআই জাহাঙ্গীর হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে তাদের বাড়ী থেকে অভিযুক্ত দুজনকে গ্রেফতার করেন।
উল্লেখ্য-গত শনিবার বেলা ১১টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে উপজেলার সোনাবাড়ীয়া গ্রামের সেনা সদস্য শফিকুর রহমান শফিকের পিতা-আবুল হোসেন (৬০) ও মাতা- নুরপান বিবি (৫০) পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে একই গ্রামের মৃত ছায়েল গাজীর ছেলে নুর ইসলাম ও নূর হোসেন। কোন কারণ ছাড়াই বৃদ্ধ আবুল হোসন (৬০) কে একা পেয়ে এলোপাড়ী ভাবে মারপিট করে জখম করে পুকুরের পানিতে ফেলে দেয়। পরে তার ডাকচিৎকারে স্ত্রী নুরপান বিবি (৫০) এগিয়ে আসলে তাকেও ধরে দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এসময় নুরপান বিবির গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন তারা ছিনিয়ে নিয়ে আত্মসাৎ করে। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসী কায়দায় তারা তাদের বাড়ী ঘর ভাংচুর করে। পরে এলাকাবাসী তাদের অচেতন অবস্থায় পুকুর থেকে আবুল হোসন (৬০) কে উদ্ধার করে কলারোয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করে। এঘটনায় কলারোয়া থানায় দুজনকে আসামী করে একটি মামলা নং-০৩(০১)১৯ দায়ের হয়েছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.