কলারোয়ায় ব্যবসায়ীর দোকান ঘর ও প্রাচীর ভাংচুর করে জমি দখলের চেষ্টা

 

 

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি

কলারোয়ায় এক ব্যবসায়ীর দোকান ঘর ও প্রাচীর ভাংচুর করে জমি দখলের চেষ্টা করে প্রতিপক্ষরা। শনিবার সকাল ১০টার দিকে ঘটনা ঘটেছে-উপজেলার খোর্দ্দ বাজারে।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী উপজেলার ছলিমপুর গ্রামের মৃত আব্দুল মোতালেব খানের ছেলে বিল্লাল খান জানান-তার পিতা  খোর্দ্দ মৌজায় ১৯৮৬ সালে ভোগল গণের কাছ থেকে ৪টি পৃথক দলিলে ১১শতক জমি ক্রয় করেন। সেই থেকে ওই জমিতে গাছ গাছালি লাগিয়ে দোকান ঘর করে ব্যবসায় করে আসছেন। কন্তু জায়গাটি খোর্দ্দ বাজার সংলগ্ন হওয়ায় কু-নজর পড়ে ওই এলাকার রবিউল ইসলাম নামে এক আমিনের। সে বিভিন্ন সময় তাদের ওই জমি নিয়ে হয়রানী করে আসছে। আদালতেও মিথ্যা ও হয়রানী মুলক মামলা দিয়েছে। মামলায় সে হেরে গিয়ে বিভিন ভাবে ফন্দিফিকির করে আসছে। এর পরে তার হয়রানীর হাত থেকে বাচতে আব্দুল মোতালেবের ছেলে ব্যবসায়ী বিল্লাল হোসেন বাদী হয়ে সাতক্ষীরার বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌ: কা: বি: ১৪৫ ধারায় একটি পিটিশন মামলা নং-৪৮৬/১৭ দায়ের করেন।

মামলাটি তদন্ত পূর্বক তদন্তের জন্য কলারোয়া থানার ওসিকে নির্দেশ দেন আদালত। পরে কলারোয়া থানার এএসআই আব্দুল হালিম মামলাটি তদন্ত করে ব্যবসায়ী বিল্লালের দখলে আছে মর্মে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দালিখ করেন। এর পর থেকে রবিউল ইসলাম তাদের উপর ক্ষিপ্ত থেকে হয়রানী করে আসছে।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে রবিউল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম ও নাজিমউদ্দিন দলবন্ধ হয়ে বিল্লালের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ও প্রাচীর ভাংচুর করে। এতে করে ওই ব্যবসায়ীর প্রায় দেড় লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে তারা জানান। এঘটনায় ক্ষতিপুরনের দাবী জানিয়ে ব্যবসায়ী বিল্লাল খান আদালতে মামলা করবেন বলে সাংবাদিকদের জানান। এদিকে অভিযুক্ত রবিউল ইসলামের ফোনে কথা বলার চেষ্টা করা হয়ে তার ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.