July 19, 2024
আঞ্চলিক

কলারোয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় দু’গ্র“পের ৪০ সমর্থক আহত

 

 

কলারোয়া (সাতক্ষীরা)  প্রতিনিধি

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোমবার বিকাল পর্যন্ত ৩৫/৪০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এর মধ্যে কয়েকজনের বাড়ী ঘর, দোকান পাট ও মুক্তিযদ্ধের স্মৃতি স্তম্ভ ভাষকর ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে গুরুত্বর জখম অবস্থায় সাতক্ষীরা সদর ও কলারোয়া উপজেলা সরকারী হাসপাতালে ১৭ জনকে ভর্তি করা হয়েছে।

কলারোয়া ও সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল সূত্রে ও আহতরা জানান- উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নৌকা ও আনারস প্রতিকের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে পৃথক ভাবে হামলা সংঘর্ষে তারা আহন হন। আহতরা হলেন- সোনাবাড়ীয়ার ইউপি সদস্য আনারুল ইসলাম (৪৫), একই গ্রামের আল আলামিন (২৭), আতাউর রহমান লাভলু (৫০), আব্দুল্লাহ (১৭), বোয়ালিয়া গ্রামের আব্দুল হামিদ (৪৫), ভাদিয়ালী গ্রামের আজমিরুল ইসলাম (২৮), মুদি দোকানী আঃ মমিন সরদার (৫৮), বোয়ালিয়ার ট্রলি চালক সুজন মোল্লা (২৫), দক্ষিণ বহুড়ার হান্নান গাজী (৪৫), মমতাজ খাতুন (৩২), পৌর সদরের তুলসীডাঙ্গা গ্রামের বদরুজ্জামান বিপ্লব (৪০), একই গ্রামের ফিরোজা খাতুন (৩০), রবিউল ইসলাম (৪০, মোজাফ্ফার হোসেন (৩৫), লাকী হোসেন (৪০), আম্বিয়া খাতুন (৪৫), কাজী বাবু (৩০)। এছাড়া বাকী আহতরা স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ী ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে রয়েছে।

এদিকে নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টুর পক্ষ থেকে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত উপজেলায় মাইকিং করে কোন প্রকার সহিংসতায় না জড়ানোর জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

কলারোয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান বলেন-এলাকায় কোন প্রকার বিশৃঙ্খলা না করার জন্য নির্বাচিত চেয়ারম্যান প্রার্থীকে জানানো হয়েছে। বর্তমানে এলাকার পরিথিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। উল্লেখ্য-রোববার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার রাত থেকে সোমবার  পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পৃথক হামলা সংঘর্ষে ৩৫/৪০ জন নেতাকর্মী আহত হয়।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *