কলারোয়ায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে আহত ১১, আটক ২

 

 

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় জমিতে বেড়া দেয়াকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে ১১জন আহত হয়েছে। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকে ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানা পুলিশ উভয় পক্ষের মধ্যে দু’জনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে- উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের গাজনা গ্রামে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গাজনা গ্রামের সামছুর রহমান (৫০) জানান- তার জমি জোর পূর্বক দখল করে বেড়া দেয়ার সময় চাচাতো ভাই গোলাম ছরোয়ার বাবুল সহিত কথাকাটির এক পর্যায়ে ঝগড়ায় সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে গোলাম ছরোয়ার বাবুল ডাক চিৎকারে গোলাম রব্বানী, গোলাম কুদ্দুস, গোলাম ভুট্টো, আতিয়ার রহমান দলবন্ধ হয়ে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অনধিকার ভাবে জমিতে প্রবেশ করে ধারালো দা, বাশের শক্ত লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ী ভাবে পিটিয়ে ও কুপিয়ে  হাজির উদ্দিন (৪৫). লাল্টু দফাদার (২৯), শামসুর রহমান সানা (৫৫), আনিছুর রহমান(৩৫) হালিমা খাতুন (৪২) ও মহিমা খাতুন (৪০) জখম করে। এসময় তাদের বাড়ী ঘরও ভাংচুর করা হয়। লাল্টুর কাছে  নগদ ২০ হাজার ৩শ টাকা ছিনিয়ে নেয়া হয়।

এদিকে গোলাম ছরোয়ার বাবুল জানান- সামসুর রহমান গংয়ের হামলায় গোলাম রব্বানী, বাবলু, ভুট্টো, কুদ্দুস ও আতিয়ার আহত হয়েছে। তাদেরকে স্থানীয় ক্লিনিকে ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে গোলাম কুদ্দুস ও আনিছুর রহমানকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

এ বিষয়ে কলারোয়া থানা অফিসার ইনচার্জ শেখ মুনীর-উল-গীয়াস জানান- এলাকায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে উভয় পক্ষের মধ্যে দুইজনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.