কপোতাক্ষ নদে পলি জমে ফের মরণদশায়

 

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

খননকৃত কপোতাক্ষ ফের পলি ভরাট হয়ে পড়ছে। এর ফলে আবারও মরণদশার মুখে পড়ছে ৯০ কিলোমিাটর দীর্ঘ এ নদ। সঠিক সময়ে  কপোতাক্ষর তালা উপজেলার পাখিমারা বিলের টিআরএম প্রকল্পে ক্রসড্যাম না দেওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। কপোতাক্ষ অববাহিকার প্রায় ২৫ লাখ জনগোষ্ঠী আবারও ভয়াবহ জলাবদ্ধতার শিকার হতে পারেন বলে তারা আশংকা করছেন।

গতকাল সোমবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা জানান কেন্দ্রিয় পানি কমিটির কর্মকর্তারা। তারা বলেন ২৬২ কোটি টাকা ব্যয়ে কপোতাক্ষ খননের পর ২০১৭ সালে তালার পাখিমারা বিলে চালু করা হয় টিআরএম (টাইডাল রিভার ম্যানেজমেন্ট, জোয়ারাধার) প্রকল্প। নিয়ম অনুযায়ী কপোতাক্ষে ভেসে আসা পলি পাখিমারা বিলে অবক্ষেপিত হয়। এতে নদী যেমন সচল থাকে তেমনি বিলসমূহ পলিমাটি ভরাট হয়ে চাষযোগ্য হয়ে ওঠে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও  বলা হয় গত বছর ৮৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ক্রসড্যাম নির্মান করা হলেও এ বছর ৬৪ লাখ টাকা বরাদ্দ পেলেও কোনো কাজ হয়নি। ফলে কপোতাক্ষে পলি জমতে শুরু করেছে। এরই মধ্যে নদের এক তৃতীয়াংশ পলিতে ভরাট হয়ে গেছে। বর্ষা মওসুমে তা আরও জটিল আকার ধারন করবে বলে জানান তারা। আগামি এক সপ্তাহের মধ্যে কপোতাক্ষর পাখিমারা টিআরএম প্রকল্পে ক্রসড্যাম নির্মানের দাবি জানিয়েছেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান কেন্দ্রিয় পানি কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ এবিএম শফিকুল ইসলাম। এ সময় তালা উপজেলা পানি কমিটির সভাপতি ময়নুল হোসেন, সেক্রেটারি মীর জিল্লুর রহমান, অধ্যক্ষ আশেক ই এলাহি, ডেপুটি মুক্তিয্দ্ধোা কমান্ডার আলাউদ্দিন জোয়ারদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে তারা পানি সম্পদ মন্ত্রী বরাবর তিন দফা দাবি সংবলিত এক স্মারকলিপি জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রদান করেন।

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *