কপিলমুনিতে চায়ের দোকানে চলছে জুয়া!

কপিলমুনি প্রতিনিধি

কপিলমুনিতে চায়ের দোকানে বসছে জুয়া খেলার আসর। ফলে এলাকার যুব সমাজ মারাত্মকভাবে জুয়ার নেশায় আক্রান্ত হচ্ছে। তবে প্রশাসনের নিরবতা সচেতনদের মাঝে নানান প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। জানা যায়, কপিলমুনি বাজারের বেশ কয়েকটি চায়ের দোকানে এক প্রকার ফ্রিস্টাইলে ক্যারাম খেলার অন্তরালে চলছে জুয়ার আসর। বাজারের পরেই দিন-রাত এমন জুয়ার আসর বসলেও যেন প্রতিকার মিলছে না; এমনটাই অভিযোগ তুলেছেন এলাকাবাসী। বেশ কিছুদিন ধরেই ওই চায়ের দোকান গুলোতে ক্যারামবোর্ড খেলা চলছে, যার অন্তরালে চলছে মোটাংকের টাকার জুয়া।

সরেজমিনে গেলে দেখা যায়, কিছু চায়ের দোকানে অত্যন্ত সতর্কতার সাথে চলেছে এই ক্যারামের আসর। কিছু কিছু চায়ের দোকানে খরিদ্দার ও বহিরাগতদের আকর্ষণ করার জন্য টেলিভিশনেরও সু-ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। কপিলমুনি এলাকার উঠতি বয়সী যুবক ছাড়াও অনেক বিশিষ্ট ব্যবসায়ীও খেলার ছলে ওই জুয়ায় অংশ নিচ্ছেন। জুয়াড়ীদের কেউ কেউ কখনো হারছে আবার কখনো জিতছে। ফলে এক দিন জেতার লোভে তারা প্রতিদিনই ওই খেলায় অংশ নিয়ে তাদের ভাগ্য পরীক্ষা থেকে দূরে থাকছে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নাছিরপুর এলাকার জনৈক ব্যক্তি বলেন, ‘প্রতিদিন সব সময় নয়, বিশেষ কিছু সময় এখানে জুয়া খেলা হয়। এর ফলে আমাদের এলাকার ছেলেরা নেশায় পড়ে ওই দিকে ঝুঁকছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে এখানকার তরুন সমাজ হয়তো নষ্ট হয়ে যাবে’। তবে প্রশাসনের নিরবতা স্থানীয়দের ভাবিয়ে তুলেছে।

এ বিষয়ে এএসপি মোহাম্মদ ইব্রাহীম (খুলনা ডি সার্কেল) বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে আমি কপিলমুনি পুলিশ ফাঁড়ী ইনচার্জকে বলব এবং তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেব।’

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.