July 13, 2024
জাতীয়লেটেস্ট

ওবায়দুল কাদেরের শারিরীক অবস্থার ক্রমশ উন্নতি হচ্ছে

এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের শারিরীক অবস্থার ক্রমশ উন্নতি হচ্ছে। তাঁর রক্তচাপ স্বাভাবিক হয়ে এসেছে। কিডনি স্বাভাবিকভাবে কাজ করছে এবং ইনফেকশন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।
গতকাল শুক্রবার ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসায় গঠিত পাঁচ সদস্যের চিকিৎসক দলের সিনিয়র সদস্য কার্ডিওথোরাসিক সার্জন ডা. সিবাস্টান কুমার সামিকে উদ্ধৃত করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক এবং নিওরোলজিস্ট প্রফেসর ডা. আবু নাসের রিজভী এ তথ্য জানান।
সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপ প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. আবু নাছের সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত ডা. রিজভীকে উদ্ধৃত করে জানান, ওবায়দুল কাদের আগের দিনের তুলনায় আজ আরো ভালো আছেন। দিন দিন তার স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে। এছাড়া কোনো ধরনের কৃত্রিম সাপোর্ট ছাড়া তাঁর হৃদযন্ত্র কাজ করছে বলেও জানান তিনি। এ সময় কাদেরের সুস্থতার জন্য দেশবাসির দোয়া কামনা করেন ডা. রিজভী।

এর আগে ডা. সামি চিকিৎসার অগ্রগতি নিয়ে ব্রিফ করেন। ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন ওবায়দুল কাদেরের স্ত্রী ইসরাতুন্নেসা কাদের, সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দীন, সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান ও চিকিৎসা সমন্বয়ক ডা. আবু নাসের রিজভী।
পরে ডা. রিজভী হাসপাতালের লবিতে চিকিৎসা বিষয়ক অগ্রগতি অবহিত করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দীন হাজারী, সংসদ সদস্য ছোট মনির, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব বেলায়েত হোসেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, সিঙ্গাপুরস্থ বাংলাদেশ কমিউনিটি নেতারা। শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান ডা. ফিলিপ কোহ চিকিৎসার সর্বশেষ অগ্রগতি নিয়ে ব্রিফ করবেন।
উল্লেখ্য, রবিবার সকালে শ্বাসকষ্ট নিয়ে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তি হন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। পরে এনজিওগ্রামে তাঁর হৃদপিÐের রক্তনালীতে তিনটি বøক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি বøক স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করেন চিকিৎসকরা। অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলে সোমবার বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার এাম্বুলেন্সে করে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় সিঙ্গাপুরে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *