এসএ গেমসে স্বর্ণজয়ী রোমান সানাকে গণসংবর্ধনা কয়রা এলাকাবাসীর

কয়রা প্রতিনিধি

আর্চারি খেলা সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসে স্বর্ণজয়ী রোমান সানাকে গণসংবর্ধণা জানালেন তার জন্মভূমি বাগালী ইউনিয়নের সর্বস্তরের মানুষ। গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় কয়রা উপজেলার লালুয়া বাগালী হাইস্কুল মাঠে গণসংবর্ধনা আয়োজন করেন এলাকার জনসাধরনের পক্ষে খুলনা জেলার ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদক জিএম রেজাউল গাইন।

রোমান সানা এলাকাবাসীর দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আর্চার রোমান সানা এলাকাবাসীর ভালবাসা পেয়ে সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন আগামী জুলাই মাসে জাপানে বিশ্ব অলিম্পিকে স্বর্ণজয়ে বাংলাদেশের সম্মান আরও একধাপ নিতে পারি। তিনি বলেন, ২০টি দেশে আর্চারি খেলার সৌভাগ্য আমার হয়েছে। এর মধ্যে সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসে ফিলিপাইনে এবং সার্কভূক্ত দেশের মধ্যে নেপাল থেকে পৃথক দুটি স্বর্ণ পদক জিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে অনেক অনুপ্রেরণা পেয়েছি। এছাড়া কয়রা পাইকগাছার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আকতারুজ্জামান বাবুর কাছ থেকে অনেক সহযোগিতা ও উৎসাহ পেয়ে নিজেকে খেলার প্রতি আরও মনোবল বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি তার জন্মভূমি বাগালী গ্রামবাসীর দেয়া এ গণসংবর্ধনা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে বলে জানান। এদিকে এলাকার সর্বস্তরের মানুষ তাদের ঘরের সন্তান আর্চার রোমান সানাকে দীর্ঘ দিন পর কাছে পেয়ে আনন্দে উল্লাসিত এবং ভালবাসায় সিক্ত করেছে তার অন্তর।

সংবর্ধনার আয়োজক বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ বাগালীর আরও একটি নক্ষত্র খুলনা জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদকসহ বিভিন্ন পদে অধিষ্ঠ জোউল গাইন সাংবাদিকদের জানান, কপোতাক্ষ নদীর কোল ঘেঁষা লবণাক্ত কাঁদামাটি জড়িত আছে রোমান সানার গায়ে। তিনি বলেন, কাঁদামাটি মাখা অজপাড়া গায়ের রোমান সানা শুধু এলাকার জন্য নয়, বাঙালী জাতির সম্মান বয়ে এনেছে এবং আগামী বিশ্ব অলিম্পিকে সোনা জিতে আনবে এমনটি আমা রোমান সানার জন্মভূমি বাগালী গ্রামের ছোটবড় সব মানুষের।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লালুয়া বাগালী হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) শাহাবাজ হোসেন, রোমান সানার পিতা আঃ গফুর সানা, চাচা রোকনুজ্জামান, বড় ভাই বিপ্লব, প্রাইমারি ও হাই স্কুল জীবনের শিক্ষকবৃন্দ, তার স্কুল জীবনের খেলার সাথী আলমগীর হোসেন, নাইম ইসলাম, তারেক ও শুভ সহ পাশের গ্রামের সাধারণ মানুষ।

 

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.