এসআই নিয়োগ পরীক্ষায় ‘প্রক্সি’ দিতে বসে ধরা দুইজন

 

 

 

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক

টাকার বিনিময়ে অন্যের হয়ে উপ-পরিদর্শক (এসআই) নিয়োগ পরীক্ষায় পরীক্ষা দিতে আসা দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে চট্টগ্রামের পুলিশ। এর মধ্যে একজনকে রোববার এবং অন্যজনকে সোমবার গ্রেপ্তার করা হয়। রোববার থেকে বন্দর নগরীর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসআই নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা চলছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত পর্যন্ত চলবে পরীক্ষা।

গতকাল সোমবার নগরীর এমইএস কলেজ কেন্দ্রে পরীক্ষা চলাকালে জাহিদ হোসেন (২৭) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। চাঁদপুর জেলার হাজিগঞ্জ থানার সহিলপুর গ্রামের মৃত আব্দুল সাত্তারের ছেলে জাহিদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিসাব বিজ্ঞানে মাস্টার্স পাস করেছেন।

খুলশী থানার ওসি প্রণব চৌধুরী বলেন, মো. ছালেহ্ উদ্দিন নামে একজনের হয়ে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন জাহিদ হোসেন। পরীক্ষা দেওয়ার জন্য এক লাখ টাকার চুক্তি হওয়ার কথা জানিয়েছে জাহিদ। সে টাকা অগ্রিম নিয়েছে। মাস্টার্স পাস করা জাহিদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জসিম উদ্দিন হলের ৩৩২ নম্বর কক্ষে থাকেন।

ওসি প্রণব চৌধুরী জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক ছাত্র সজীব, যার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়, সে এই চুক্তিতে মধ্যস্থতাকারী ছিল। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।  এর আগে রোববার নগরীর দামপাড়ায় সিএমপির স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র থেকে শাহ আলম (২৬) নামের আরেকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি টাঙ্গাইল জেলার বাসাইল এলাকার মৃত ইউসুফ আলীর ছেলে।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (বায়েজিদ জোন) সহকারী কমিশনার পরিত্রাণ তালকুদার জানান, ২০ হাজার টাকার বিনিময়ে বাঁশখালীর বাসিন্দা নাঈম উদ্দিন হোসেনের হয়ে লিখিত পরীক্ষা দিতে এসেছিলেন শাহ আলম। কেন্দ্র পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান টিটুর সন্দেহ হওয়ায় তিনি পরিচয়পত্রের সাথে ছবি মিলিয়ে দেখলে বিষয়টি ধরা পড়ে। এ ঘটনায় শাহ আলম ও নাঈম উদ্দিন হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

 

 

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.