এবার ১৫০০ মণ মেয়াদোত্তীর্ণ মাছ-মাংসের সন্ধান

দক্ষিণাঞ্চল ডেস্ক
রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলের আরও একটি হিমাগারে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ মাছ-মাংসের সন্ধান পেয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মেয়াদোত্তীর্ণ প্রায় ১১শ মণ গরু, মহিষ ও ভেড়ার মাংস ও ৪শ মণ মাছ, কাঁকড়া, শামুক জব্দ করা হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার বিকেল থেকে মাছ-মাংস আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান ‘সেফ অ্যান্ড ফ্রেস ফুড লি.’ নামে একটি কোম্পানির হিমাগারে অভিযান চালিয়ে এসব জব্দ করা হয়। র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে র‌্যাব-২ এ অভিযান চালায়।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, অভিযান চলছে। আমদানি করা বিপুল পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ মাংস ও মাছ এখানে মজুদ করে রাখা হয়েছে। সুন্দরভাবে প্যাকেটজাত করে রাখা হলেও মাছ-মাংসের মেয়াদ শেষ হয়েছে গত বছরই। আর এসব মাছ-মাংস সরবরাহ করা হতো বিভিন্ন সুপারশপ ও নামিদামি হোটেল-রেস্তোরাঁয়।
এ পর্যন্ত মেয়াদোত্তীর্ণ প্রায় ১১শ মণ গরু, মহিষ ও ভেড়ার মাংস ও ৪শ মণ মাছ, কাঁকড়া, শামুক জব্দ করা হয়েছে। এ অপরাধে হিমাগারটিকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি। জানা যায়, হিমাগারটিতে ভারতীয় কোম্পানি ‘রুস্তম ফুড’ ও ‘ফুড চেইন এশিয়া লি.’ নামক সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের পণ্য বেশি রয়েছে।

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.